BREAKING NEWS

১১ শ্রাবণ  ১৪২৮  বুধবার ২৮ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

হুইলচেয়ার সরিয়ে রেখে বাস্কেটবলে মাতলেন প্রজ্ঞা ঠাকুর! ভাইরাল ভিডিওয় বিস্মিত নেটিজেনরা

Published by: Biswadip Dey |    Posted: July 3, 2021 7:18 pm|    Updated: July 3, 2021 7:18 pm

On camera, BJP's Pragya Thakur plays; video goes viral | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি অসুস্থ। হুইলচেয়ারেই বহুদিন ধরে বসে থাকতে দেখা যায় তাঁকে। কিন্তু এবার হুইলচেয়ার ছেড়ে উঠে দাঁড়ানোই নয় কেবল, রীতিমতো বাস্কেটবল (basketball) খেলা শুরু করে দিতে দেখা গেল BJP সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞা সিংহ ঠাকুরকে (Pragya Singh Thakur)। সেই ভিডিও ভাইরাল (Viral video) নেট দুনিয়ায়।

ভিডিওয় প্রজ্ঞার দক্ষতা দেখে বিস্মিত নেটিজেনরা। কেবল বাস্কেটবল খেলাই নয়। একেবারে নিপুণ দক্ষতায় বাস্কেটে বল ঠেলে স্কোর করা। সব মিলিয়ে রীতিমতো পেশাদারদের ভঙ্গি। স্বাভাবিক ভাবেই এমন ভিডিও দ্রুত বেগে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: Rafale মামলায় যৌথ সংসদীয় কমিটির তদন্তের দাবি, ‘নতুন অস্ত্র’ পেয়েই সরব Congress]

ভোপালের শক্তিনগরের বাস্কেটবল কোর্টে গিয়েছিলেন বিজেপি নেত্রী। উদ্দেশ্য ছিল বৃক্ষরোপণ। কিন্তু সেখানেই তাঁকে বাস্কেটবল নিয়ে মেতে উঠতেও দেখা যায়। যা দেখে এমনকী মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস নেতা নরেন্দ্র সালুজাও প্রশংসা করেছেন।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ প্রজ্ঞা। গত ফেব্রুয়ারি মাসে এইমসে ভরতি হন তিনি। পরে মার্চে নয়াদিল্লি থেকে তাঁকে মুম্বইয়ে উড়িয়ে আনা হয়। মূলত শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন তিনি। এর আগে গত বছরের ডিসেম্বরেও অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন প্রজ্ঞা।
এর আগে তাঁর ক্যানসারও হয়েছিল বলে জানিয়েছিলেন তিনি। এমনকী, গোমূত্র পান করেই তাঁর ক্যানসার সেরে গিয়েছিল বলেও জানিয়েছিলেন। যা নিয়ে প্রবল বিতর্ক হয়েছিল। গত মে মাসে তিনি দাবি করেছিলেন, প্রতিদিন যদি দেশি গোমূত্র পান করা যায়, তবে তা কোভিড থেকে হওয়া ফুসফুস সংক্রমণ সারিয়ে দিতে পারে। এই মন্তব্য থেকেও বিতর্ক তৈরি হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: চার মাসে ৩ বার কুরসি বদল, উত্তরাখণ্ডের নয়া মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা বিজেপির]

সম্প্রতি মুম্বই হামলার শহিদ মুম্বইয়ের সন্ত্রাস দমন শাখার প্রাক্তন প্রধান হেমন্ত কারকারে (Hemant Karkare) সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করেও বিতর্কে জড়িয়েছিলেন প্রজ্ঞা। ২০০৮ সালের মালেগাঁও বিস্ফোরণ মামলার অন্যতম অভিযুক্ত প্রজ্ঞার দাবি ছিল, মামলার তদন্তভার ছিল কারকারের হাতে। তাঁকে জেরা করার সময় তাঁর উপরে নির্যাতন করেছিলেন কারকারে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement