২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাষ্ট্রসংঘে একটা ভোট ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্কে চিড় ধরাবে না, আশ্বাস নেতানিয়াহুর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 15, 2018 3:36 am|    Updated: January 15, 2018 3:36 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খানিকটা যেন হাঁপ ছেড়ে বাঁচলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কারণ তাঁর অবস্থা যে অনেকটা ‘শ্যাম রাখি না কূল’ গোছের। ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু ভারত সফরে এসেছেন মোটা অঙ্কের সামরিক চুক্তি করতে। কিন্তু জেরুজালেমকে ইজরায়েলের রাজধানী ঘোষণা করার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রসংঘে ভোট দিয়েছে ভারত। ওই পদক্ষেপ মোদির গলার কাঁটা হয়ে ছিল। শেষ পর্যন্ত অবশ্য সুখবরটা এল নেতানিয়াহুর তরফ থেকেই। ইজরায়েলি প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট জানালেন, স্রেফ একটা ভোট ভারতের সঙ্গে ইজরায়েলের দীর্ঘদিনের সুসম্পর্কে বাধা হয়ে দাঁড়াবে না। স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলল সাউথ ব্লকও। তবে ভারতের ভোটে যে ইহুদি রাষ্ট্রটির সামান্য গোঁসা হয়েছে, সেটাও হাবেভাবে বুঝিয়েছেন নেতানিয়াহু।

[প্রোটোকল ভেঙে ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রীকে আলিঙ্গন মোদির, কটাক্ষ কংগ্রেসের]

মোদি অবশ্য আতিথেয়তায় কোনও ত্রুটি রাখেননি প্রথম থেকেই। হাইপ্রোফাইল ‘বন্ধুকে’ স্বাগত জানাতে সব প্রোটোকল ভেঙে হাজির হয়েছেন রাজধানীর বিমানবন্দরে। আর হবেন নাই বা কেন! ‘বন্ধু’ কে সেটাও তো দেখতে হবে। অবশ্য নেতানিয়াহুও কিছুতে কম যান না। তার প্রমাণ মিলেছে মোদির জন্য নিয়ে আসা অভিনব উপহার থেকে। মোদির জন্যে তিনি এনেছেন একটি জল পরিশোধনের উপযোগী জিপ। যার দাম ১,১১,০০০ মার্কিন ডলার। ছ’দিনের ভারত সফরে রবিবার সকালেই নয়াদিল্লি পৌঁছন বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। অতিথি আপ্যায়নের পরেই দুই শীর্ষ নেতাই টুইটারে নিজেদের ছবি টুইট করেন। নেতানিয়াহু লেখেন, ‘আমাকে ‘সারপ্রাইজ’ দিতে খোদ মোদি বিমানবন্দরে এসেছেন। অসংখ্য ধন্যবাদ আমার প্রিয় বন্ধু মোদিকে। আমার বিশ্বাস, এই সফরের পরে দু’দেশের সম্পর্ক অন্যমাত্রা পাবে।’ এই সফরে নেতানেয়াহুর সঙ্গে এসেছেন তাঁর স্ত্রী সারা নেতানিয়াহু। এছাড়াও আছেন ১৩০ জন শিল্পপতিদের একটি বিশাল দল। দলে রয়েছেন রাফায়েল অস্ত্র চুক্তির প্রধানও।

[সোহরাবউদ্দিন এনকাউন্টার মামলায় অমিত শাহর বিরুদ্ধে ফের তদন্তের দাবি কংগ্রেসের]

রাষ্ট্রসংঘে ভোটের প্রসঙ্গে এদিন নেতানিয়াহু বলেন, ‘ভারত ও ইজরায়েলের মধ্যে দীর্ঘদিন বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। দুই দেশের সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে ব্যবসায়ী- প্রত্যেকেই গভীর সম্পর্কে আবদ্ধ। দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কটা অনেকটা বিবাহের মতো। যা বিধাতা স্বর্গে বসে লিখেছেন, আর আমরা পৃথিবীতে পালন করছি।’ মোদিকে একজন মহান নেতা বলেও সম্বোধন করেন নেতানিয়াহু। বলেন, এ দেশের মানুষকে ভবিষ্যতের পথে এগিয়ে যাচ্ছে মোদি। ভারত ও ইজরায়েলের সেনা একযোগে জঙ্গি দমন অভিযানে নামবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। প্রতিরক্ষার পাশাপাশি ভারতের সঙ্গে ইজরায়েল মোটা অঙ্কের আধুনিক গাড়ি উৎপাদন সংক্রান্ত চুক্তিও করতে চলেছে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন সে দেশের প্রধানমন্ত্রী। ১৫ বছরে এই প্রথম কোনও ইজরায়েলি প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরে এলেন। এর আগে ২০০৩-এ শেষবার দেশে এসেছিলেন এরিয়েল শ্যারন। সাউথ ব্লকের কাছে ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর এবারের ভারত সফর যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। বেঞ্জামিনের সঙ্গে এসেছেন অস্ত্র ব্যবসায়ীদের একটি বড় অংশই। আজ পর্যন্ত ভারতে একসঙ্গে এত বড় মাপের অস্ত্র ব্যবসায়ীরা পা রাখেননি। ছ’দিনের ভারত সফরে আসার আগে টুইট করে নেতানিয়াহু জানান, তিনি বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি স্বাক্ষর করতে চলেছেন মোদির সঙ্গে।

[কলকাতা-সহ দেশের ৪টি ট্যাঁকশালে ফের শুরু কয়েন উৎপাদন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement