৪ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo দিল্লি ২০২০ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছিলেন পাক নাগরিক, হয়ে গেলেন ভারতের এক গ্রামের পঞ্চায়েত প্রধান। CAA-NRC নিয়ে দেশজুড়ে তোলপাড়ের মধ্যেই রাজস্থানের একটি গ্রামের পঞ্চায়েত প্রধান নির্বাচিত হলেন পাকিস্তানের নীতা কানওয়ার। গত বছরও এই সময়ে তিনি ছিলেন পাক নাগরিক। কিন্তু বৈবাহিক সূত্রে তিনি ভারতীয় নাগরিকত্ব পেয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

রাজস্থানের টংক জেলার নাতওয়ারা গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচনে ১০৭৩টি ভোট পেয়ে জিতেছেন নীতা। নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন ৭ জন প্রার্থী। ২০০৫ সালে ভারতে পড়াশোনার জন্য এসেছিলেন নীতা। আজমেরের সোফিয়া কলেজ থেকে কলা বিভাগে স্নাতক নীতা তার ঠিক ছ’বছর পর নাতওয়ারার পুণ্যপ্রতাপ করণের সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েন। তারপর তিনি ভারতীয় নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করেন। গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে তিনি নাগরিকত্ব পান।

[আরও পড়ুন: কাশ্মীরে 2G ইন্টারনেট-ভয়েস কল পরিষেবা চালু, বহাল রইল সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা]

ওই তরুণীর শ্বশুর ঠাকুর লক্ষ্ণণ সিং করণ স্থানীয় কংগ্রেস নেতা। এর আগে তিন তিনবার পঞ্চায়েত প্রধান নির্বাচিত হয়েছেন লক্ষ্ণণ। তবে এবার আসনটি মহিলা সংরক্ষিত হওয়ায় নিজের পুত্রবধূকে ভোটে দাঁড় করান তিনি। আর প্রথমবার ভোটে দাঁড়িয়েই বাজিমাত করেন নীতা। শুক্রবার ভোটে জয়লাভের পর যাঁরা তাঁকে জয়ী করেছেন তাঁদের প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানিয়েছেন নীতা। আগামিদিনে সততা ও পরিশ্রমের সঙ্গে পঞ্চায়েতের উন্নয়নের কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং