১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ড্রোনের মাধ্যমে সীমান্ত টপকে ভারতে আসছে মাদক!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 6, 2018 8:24 pm|    Updated: June 6, 2018 8:24 pm

Pakistan drug peddlers using drones to cross fence with India

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাব ডেস্ক: ড্রোনের সাহায্য নিয়ে বাড়ি বাড়ি খাবার, বই ও অন্যান্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া যার কিনা সেই নিয়ে এখনও আলোচনা ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছে ফ্লিপকার্ট, আমাজন, জোমাটোর মতো সংস্থাগুলি৷ এরা যখন আলোচনা বা পরীক্ষায় ব্যস্ত রয়েছে, তখন তাদের থেকে অনেক এগিয়ে গিয়েছে পাক জঙ্গি, মাদক পাচারকারীরা৷ বিএসএফ সূত্রে খবর, নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন ভারতের গ্রামগুলিতে ইতিমধ্যে ড্রোনের সাহায্যে মাদক পাচারের কাজ শুরু করে দিয়েছে এরা৷ সম্প্রতি নিরাপত্তারক্ষীদের নজরে এসেছে বিষয়টি৷ এরপরেই নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন৷

[একসঙ্গে হোক বিধানসভা এবং লোকসভা ভোট, মোদির ডাকে সাড়া যোগী-অখিলেশের]

সীমান্ত টপকে ভারতে ঢুকে কেবল নাশকতাই চালাত না, পাকিস্তানের মাটিতে বেড়ে ওঠা জঙ্গি সংগঠনগুলি৷ ভারত-পাক সীমান্তবর্তী গ্রামগুলিতে পাচারকারীদের সাহায্যে তারা ছড়িয়ে দিত মারাত্মক ক্ষতিকর ড্রাগস, হেরোইনের মতো মাদকদ্রব্য৷ যার জেরে বিশেষ ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে পাঞ্জাব৷ রাজ্যের যুব সমাজের একটা বড় অংশ এই মাদকের নেশায় বুঁদ হয়ে গিয়েছে৷ জম্মু-কাশ্মীর, পাঞ্জাব দিয়ে এই নেশার সামগ্রী ভারতে ঢুকে তা ছড়িয়ে পড়ছে উত্তর ভারত, মধ্য ভারত ও পূর্ব ভারতে৷ বিএসএফ জানাচ্ছে, সীমান্তে নজরদারি কঠোর হওয়ায় যথেষ্ট চাপে পড়েছে পাক জঙ্গি সংগঠনগুলি৷ প্রায় বন্ধ হওয়ার মুখে তাদের মাদক পাচারের ব্যবসা৷ এমত অবস্থায় অনেকদিন ধরেই নয়াপন্থা আবিষ্কার করার চেষ্টা করছিল সংগঠনগুলি৷ সীমান্তের ওপাড় থেকে ড্রোনের মাধ্যমে পাঞ্জাবের বিভিন্ন সীমান্তবর্তি গ্রামগুলিতে সরাসরি মাদক পৌঁছে দেওয়ার কাজ শুরু করেছিল তারা৷

[পরকীয়া সন্দেহে প্রকাশ্য রাস্তায় মারধর যুগলকে, ভাইরাল ভিডিও]

বিএসএফ সূত্রে খবর, তাঁদের কাছে অনেকদিন এমন খবর থাকলেও তা চোখে পড়েনি৷ তবে সম্প্রতি পাঞ্জাবের চণ্ডীগড়, সাহারানের কাছে চেকপোস্টে বিষয়টি ধরা পড়ে৷ দেখতে পান, সীমান্তের ওপার থেকে একটি ব্যাগ ড্রোনের মাধ্যমে কাঁটাতারের প্রায় ২০০ মিটার উপর দিয়ে ভারতীয় সীমান্তে প্রবেশের চেষ্টা করছে৷ বিষটি নজরে আসার পরেই গুলি চালায় নিরাপত্তারক্ষীরা৷ নামানোর চেষ্টা করেন ড্রোনটি৷ কিন্তু সেটা সম্ভব হয়নি৷ নিরাপত্তারক্ষীরা গুলির চালানো শুরু করলেই ড্রোনটি আবার পাকিস্তানের দিকে পালিয়ে যায়৷ তাঁদের অনুমান, পাঞ্জাবের সীমান্তবর্তি প্রদেশ গুরুদাসপুর, আবোহার, ফিরোজপুর, অমৃতসরে মাদক পাচারের জন্যই ড্রোনের মাধ্যমে ব্যাগ পৌঁছে দেওয়া হচ্ছিল৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে