BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

গুজরাটে ভরাডুবি হবে দলের, অনুমান খোদ বিজেপি সাংসদেরই

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 17, 2017 5:49 am|    Updated: September 19, 2019 12:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এ যেন ভূতের মুখে রামনাম! যেখানে গোটা দেশে শাসকদলের নেতারা গুজরাট নির্বাচনে জয় নিয়ে আত্মবিশ্বাসী, সেখানেই সংশয় প্রকাশ করলেন বিজেপি সাংসদ সঞ্জয় কাকাড়ে। তাঁর অনুমান, গুজরাটে ভরাডুবি হবে দলের।

[ আধার না থাকলে যৌনপল্লির দরজা বন্ধ, নয়া নিয়মের গেরোয় ‘খদ্দেররা’ ]

এক্সিট পোলের রায়ও বিজেপির পক্ষেই। ভোটের গুজরাটে দারুণ উত্থান হয়েছে বিরোধী নেতা রাহুল গান্ধীর। আক্রমণে আক্রমণে শাসকদলকে ফালাফালা করেছেন তিনি। নোট বাতিল থেকে জিএসটি, চাকরি থেকে কৃষি নিয়ে চাপে রেখেছিলেন মোদি সরকারকে। এমনকী বিজেপির তুরুপের হিন্দুত্ব তাসও নিজের আস্তিনে টেনে নিয়েছেন। মন্দিরে মন্দিরে পা রেখে রাহুল বুঝিয়ে দিয়েছেন, তিনিও কম যান না। রাহুল কাঁটা এতটাই তীব্র ছিল যে, খোদ অমিত শাহ ও নরেন্দ্র মোদিকে সামনে থেকে তার বিরোধিতা করতে হয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও সেখানে নাকি দলের পরাজয়ই হবে। এমনটাই অনুমান মহারাষ্ট্রের এই বিজেপি সাসংদের। তাঁর বক্তব্য, “বিজেপি দীর্ঘদিন ধরে এই রাজ্যে ক্ষমতায় আছে। এর প্রভাব ভোটে পড়তে পারে। দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার কুফল ভোগ করতে হবে দলকে। তাছাড়া রাজ্যের মুসলিম অধিবাসীদের বৃহত্তর অংশই বিজেপিকে পছন্দ করছে না।”

আফরাজুল কাণ্ডে শম্ভুলালের সমর্থনে উত্তাল উদয়পুর, ২৪ ঘন্টা বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা ]

কিন্তু কীসের ভিত্তিতে এই কথা বলছেন বিজেপি নেতা? এক্ষেত্রে তাঁর ব্যাখ্যা, এর জন্য দায়ী হবেন নরেন্দ্র মোদিই। কারণ মোদি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে রাজ্যের দিকে আলাদাভাবে নজর দেননি। তিনি মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন রাজ্যের বিষয়ে যেরকম গুরুত্ব দিতেন, রাজ্যের মানুষের সুযোগ-সুবিধার দিকে যেরকম নজর রাখতেন, তা আর রাখেন না। তাঁর দাবি, এর প্রভাব পড়তে পারে ইভিএমে। সংবাদসংস্থা এএনআই-কে তিনি জানিয়েছেন, কংগ্রেস যদি এই নির্বাচন জেতে, তবে তা যত না কংগ্রেসের সাফল্য, তার থেকেও বেশি বিজেপির ব্যর্থতা। নির্বাচনী প্রচার অভিযানের অসাড়তাই দলকে ডোবাবে বলে মনে করছেন তিনি।

তিন তালাক বিল পাশ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায়, ৩ বছর জেলের প্রস্তাব ]

যদিও এই নেতার মত একেবারেই ব্যতিক্রমী। এক্সিট পোল শাসকদলকে ইতিমধ্যেই এগিয়ে রেখেছে। বিজেপি নেতারাও আত্মবিশ্বাসী। রাহুল গান্ধী কড়া টক্কর দেবেন, এমনটা অনেকেই মনে করছেন। কিন্তু তাতে শাসকদলের ক্ষমতায় ফেরা আটকাবে না বলেই বিশ্বাস রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের। তবে বিজেপির জয় নিয়ে সংশয়ে শিব সেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরেও। এক্সিট পোলের মতামত নিয়ে ধন্দে আছেন তিনিও। বিজেপির নিরঙ্কুশ ক্ষমতায় ফেরা নিয়েও তিনি অন্যান্যদের সঙ্গে সহমত নন। এদিকে এই পরিস্থিতিতেই রবিবার গুজরাটের ছটি বুথে পুনরায় ভোটগ্রহণের নির্দেশ দেয় কমিশন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement