১ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসাবে আর বৈধ নয় পাসপোর্ট

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 13, 2018 5:02 am|    Updated: January 13, 2018 5:02 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয়দের পাসপোর্টে এল বড়সড় পরিবর্তন। কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রক ঘোষণা করল, এবার থেকে পাসপোর্টের শেষ পাতাটি খালি থাকবে। পুরনো পাসপোর্টের শেষ পাতায় পাসপোর্টধারীর মা-বাবার নাম, ঠিকানা, কবে পাসপোর্টটি ইস্যু হয়েছে- সহ বেশ কিছু দরকারি তথ্য থাকত। কিন্তু অরেঞ্জ পাসপোর্টে ওই পাতাটি খালি থাকবে। ফলে এবার থেকে আর কারও ঠিকানার প্রমাণ হিসাবে পাসপোর্টকে গণ্য করা হবে না।

[দশ ক্যাচের রেকর্ড নিয়েও দ্বিতীয় টেস্টে বাদ যেতে পারেন ঋদ্ধি!]

২০১৬-র জুলাই মাসে কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রক তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে। নতুন পাসপোর্টে বেশ কিছু পরিবর্তনের সুপারিশ করে ওই কমিটি। সুপারিশের রিপোর্ট মন্ত্রকের কাছে ২০১৬-রই সেপ্টেম্বরে পেশ করা হয়। তার মধ্যে বেশ কয়েকটি সুপারিশকে শুক্রবার  স্বীকৃতি দিল বিদেশমন্ত্রক। মন্ত্রকের মুখপাত্র রভিশ কুমার জানালেন, পাসপোর্টের শেষ পাতায় ঠিকানা না থাকায় এবার থেকে আর ঠিকানার প্রমাণ হিসাবে পাসপোর্টকে মান্যতা দেওয়া হবে না। এর পাশাপাশি ‘ইমিগ্রেশন চেক রিকোয়ারড’ বা ECR স্টেটাসের ভিত্তিতেও নতুন পাসপোর্টে কয়েকটি পরিবর্তন এনেছে মন্ত্রক।

[বর্জ্য পুনর্ব্যবহার করে বিপুল আয়, দৃষ্টান্ত তৈরির পথে মাইসুরু]

যাঁদের ইমিগ্রেশন চেক প্রয়োজন তাঁদের জন্য অরেঞ্জ পাসপোর্ট ও যাঁদের প্রয়োজন নেই তাঁদের জন্য পুরনো নীল রংয়ের পাসপোর্ট ইস্যু হবে। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক উড়ান সংস্থার সঙ্গে কথা বলেই পাসপোর্টে কিছু পরিবর্তন আনার কথা সুপারিশ করে মন্ত্রকের সুপারিশ কমিটি। সেই সুপারিশ মেনেই ১৯৬৭-র পাসপোর্ট অ্যাক্ট ও ১৯৮০-র পাসপোর্ট রুল মোতাবেক যে শেষ পাতায় ঠিকানা থাকত, সেটি এখন থেকে না ছাপানোর সিদ্ধান্ত নিল বিদেশমন্ত্রক। এবার নাসিকের ইন্ডিয়ান সিকিউরিটি প্রেস নতুন পাসপোর্ট ছাপবে। যতদিন না সেই নতুন পাসপোর্ট আসছে, ততদিন অবশ্য পুরনো পাসপোর্টই বৈধ থাকছে বলে জানিয়েছেন রাভিশ কুমার।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement