BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মধ্যবিত্তের পকেটে টান, টানা পাঁচদিন বাড়ল পেট্রল-ডিজেলের দাম

Published by: Paramita Paul |    Posted: June 11, 2020 1:11 pm|    Updated: June 11, 2020 1:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একটানা পাঁচদিন বাড়ল পেট্রোলের দাম। পেট্রলের দাম ৭৩ টাকা থেকে বেড়ে ৭৬ টাকায় এসে দাঁড়িয়েছে। বৃহস্পতিবার কলকাতা পেট্রলের দাম বেড়েছে ৫৮ পয়সা। ফলে কালকাতায় পেট্রলের বর্তমান দাম ৭৫.৯৪ টাকা। আর ডিজেলের দাম বেড়ে হয়েছে ৬৮.১৭ টাকা। জ্বালানি তেলের দাম বাড়তে থাকায় বেজায় সমস্যায় গাড়ি চালকেরা। তবে শুধু গাড়ি চালকরা নয়, জ্বালানির দাম বাড়লে বাজারের অন্যান্য জিনিসের দাম বাড়বে এটাই স্বাভাবিক।

লকডাউনের আগে শেষবার জ্বালানির দাম বেড়েছিল ১৬ মার্চ। তারপর লকডাউন চালু হয়ে যাওয়ায় কমে যায় জ্বালানির চাহিদা। করোনা ত্রাসে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের চাহিদা তলানিতে নেমে যায়। করোনার কারণে বিশ্বজুড়ে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল শিল্প-কারখানা। লকডাউনের জেরে বন্ধ ছিল পরিবহণও। যার ফলে বিশ্বজুড়েই কমে যায় চাহিদা, ব্যতিক্রম নয় ভারতও। এভাবে চাহিদা কমায় আন্তর্জাতিক বাজারে অশোধিত তেলের দামও চলে যায় তলানিতে। যদিও, সেই মূল্যহ্রাসের সুফল এদেশের সাধারণ নাগরিকরা পাননি। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমার সুবিধা নিয়ে সরকার এর মধ্যে একধাক্কায় অনেকটা বাড়িয়ে দিয়েছে জ্বালানির অন্তঃশুল্ক। পেট্রলে লিটারপ্রতি ১০ টাকা এবং ডিজেলে লিটারপ্রতি ১৩ টাকা করে বাড়ানো হয় কর। আসলে সরকার চাইছিল, তেলের দাম না কমিয়ে এই সুযোগে রাজকোষের ঘাটতি পূরণ করতে।

কিন্তু দেশে চেনা ছন্দে ফিরতে শুরু করতেই ফের বাড়ছে তেলের দাম। আর এর জেরে বেজায় সমস্যায় পড়েছেন গাড়ি চালকরা। সরকার অন্তঃশুল্ক বাড়ানোর পরও অবশ্য সাধারণ মানুষকে বাড়তি টাকা গুণতে হয়নি। আগের মতো দামেই পেট্রল ও ডিজেল কিনছিলেন আমজনতা। কিন্তু কর বেড়ে যাওয়ায় পেট্রল-ডিজেল বিক্রেতা সংস্থাগুলির মুনাফা কমে যায়। বাজারে চাহিদা বাড়তেই সেই ক্ষতি পূরণ করে নেওয়া শুরু করল সংস্থাগুলি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement