১৭  মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

অসাধারণ ফটোগ্রাফার নরেন্দ্র মোদি, এই ছবিগুলি তারই প্রমাণ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 24, 2018 5:03 pm|    Updated: September 24, 2018 5:03 pm

PM Modi has brilliant photography skills, here is the proof

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যিনি রাঁধেন, তিনি চুলও বাঁধেন। কেউ একসঙ্গে একের বেশি কাজ করতে পারলেই তাঁর প্রশংসায় এই প্রবাদটি আমরা সহজেই বলে ফেলি। এই প্রশংসা কিন্তু আমাদের প্রধানমন্ত্রীরও প্রাপ্য। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নরেন্দ্র মোদির কাজকর্মে কেউ খুশি, কেউ অখুশি। কেউ খুব খুশি আবার কেউ এক্কেবারেই খুশি নন। কিন্তু মোদির এই প্রতিভাটির প্রশংসা সকলকেই করতে হবে। বলতেই হবে, অসাধারণ ছবি তোলেন প্রধানমন্ত্রী।

[চিন-পাকিস্তানের ঘুম উড়িয়ে পৃথ্বী মিশাইলের সফল উৎক্ষেপণ ভারতের]

এর আগে শরীর চর্চার ভিডিও পোস্ট করেছিলেন মোদি নিজেই। বিশ্ব যোগ দিবসে তাঁর যোগ ব্যায়ামও সকলেই দেখেছেন। কিন্তু ফটোগ্রাফির প্রতিভাটিকে তিনি লুকিয়েই রেখেছিলেন। বলতেই হবে, ছবি তোলার ক্ষেত্রে মোদি কিন্তু ছুপা রুস্তম। কারণ সিকিমে পাকইয়ং বিমানবন্দর উদ্বোধনে যাওয়ার সময় মোদি যে ছবিগুলি তুলেছেন তা সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে। সিকিম যাওয়ার পথে হেলিকপ্টারে বসে ছবিগুলি তোলেন প্রধানমন্ত্রী। পরে টুইটারে নিজেই সেগুলিকে পোস্ট করেন। ক্যাপশন লেখেন, নির্মেঘ এবং অসাধারণ সিকিম। হ্যাশট্যাগ দেন ইনক্রেডিবল ইন্ডিয়া। মোদির এই টুইট রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ছবি তোলার প্রতিভাকে কুর্নিশ জানাচ্ছেন নেটিজেনরা। কেউ কেউ অবশ্য কটাক্ষও করছেন। বলছেন, ‘বিদেশে গিয়ে মোদিজি যে ছবিগুলি তুলেছেন, সেগুলিও দেখার ইচ্ছে রইল।’

[প্রথম ‘গ্রিন ফিল্ড’ বিমানবন্দর পেল সিকিম, উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী]

সোমবার গ্যাংটক থেকে ৩৩ কিলোমিটার দূরে পাকইয়ং বিমানবন্দরের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। শিলান্যাসের ৯ বছর পরে সিকিমের বিমানবন্দরের স্বপ্ন সফল হল। প্রকল্পটির কাজ শুরু হয়েছিল ইউপিএ আমলে। এতদিনে সেই কাজ শেষ হল, এবং উত্তরপূর্ব ভারতের প্রথম গ্রিন ফিল্ড বিমানবন্দরটিকে জাতির উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করলেন মোদি। তবে, শিরোনাম কুড়িয়ে নিল সিকিম পৌঁছানোর আগে তাঁর তোলা এই ছবি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে