BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

আস্থা মোদিতেই, বিশ্বাসযোগ্যতার নিরিখে বিশ্বে তৃতীয় ভারত সরকার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 20, 2017 5:42 am|    Updated: September 23, 2019 2:18 pm

PM Modi leading third most-trusted govt in world: OECD

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মোদিতেই আস্থা রয়েছে মানুষের। বিশ্বাসযোগ্যতার নিরিখে বিশ্বের মধ্যে তিন নম্বর স্থানে রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকার। ‘ওইসিডি’ বা অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কোঅপারেশন এন্ড ডেভেলপমেন্ট নামের এক আন্তর্জাতিক সংস্থার সমীক্ষায় উঠে এল এমনই তথ্য।

[দুর্গাপুর ইস্পাত কারখানায় ভয়াবহ দুর্ঘটনা, বিষাক্ত গ্যাস লিক করে মৃত ২]

গুজরাট নির্বাচনের আগে এই সমীক্ষায় ফের চাঙ্গা মোদি সরকার। ভোঁতা বিরোধীদের জিএসটি ও নোট বাতিল ‘ব্রহ্মাস্ত্র’। উন্নয়ন ও কেলেঙ্কারি নিয়ে কেন্দ্রকে কোণঠাসা করার চেষ্টা চালাচ্ছে কংগ্রেস-সহ বিরোধী দলগুলি। এই সমীক্ষায় জোর ধাক্কা খেয়েছে তারা বলে মত বিশ্লেষকদের। ওই সমীক্ষার কথা উল্লেখ করে ডব্লুইএফ বা ওয়ার্ল্ড ইকনমিক ফোরাম বলেছে, “মোদি সরকারেই আস্থা রেখেছে দেশের চারভাগের মধ্যে তিনভাগ মানুষ।”

ডব্লুইএফ আরও জানিয়েছে, সম্প্রতি দুর্নীতি রুখতে কেন্দ্রীয় সরকার যে ব্যবস্থা নিয়েছে এবং কর ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন এনেছে তাতে কেন্দ্রের উপর আস্থা বেড়ে গিয়েছে দেশবাসীর। প্রায় ৭৪ শতাংশ ভারতীয় জানিয়েছেন, তাঁরা মোদি সরকারের কাজে খুশি। এই সমীক্ষায় খুশির হওয়ায় গেরুয়া শিবিরে। ইরিমধ্যে ‘ওইসিডি’-র  সমীক্ষার বিষয়টি নিয়ে ট্যুইট করে উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী জেপি নাড্ডা।

তবে শুধু আনন্দ প্রকাশই নয়, টুইটারে বিরোধীদেরও একহাত নিয়েছেন নাড্ডা। কংগ্রেসকে নিশানায় নিয়ে তিনি বলেন, বিগত কয়েক বছরে সরকার ও রাজনীতিবিদের উপর আস্থা হারিয়েছে মানুষ। মজবুত নেতৃত্ব ও উপযোগী নীতির মাধ্যমে সেই আস্থা ফিরিয়ে এনেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। তাঁর নেতৃত্বে এক নতুন ভারতের স্বপ্ন দেখছে দেশবাসী।

ওইসিডি-র তালিকায় প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে যথাক্রমে রয়েছে সুইজারল্যান্ড ও ইন্দোনেশিয়া। তবে চিলি, ফিনল্যান্ড, গ্রিস ও স্লোভেনিয়া সরকারে আস্থা কমেছে সেই সব দেশের জনতার। আন্তর্জাতিক সংস্থাটি জানায়, এই সমীক্ষায় দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা, রাজনৈতিক উত্থান ও শোরগোল ফেলা বড়সড় কেলেঙ্কারির ঘটনাগুলিকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। মানুষের আস্থা অর্জন করার জন্য স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কর্মসংস্থানের মতো জনকল্যাণ মূলক পরিষেবার খাতে খরচ বাড়িয়ে তুলতে হবে সরকারকে। উল্লেখ্য, দীর্ঘ ১৩ বছর পর মার্কিন সংস্থা মুডিজ-এর বিচারে রেটিং বেড়েছে ভারতের। একের পর এক আন্তর্জাতিক সংস্থার সমীক্ষায় মোদি সরকারের জয়জয়কারে কার্যত স্তব্ধ বিরোধী শিবির।

[রাষ্ট্রপতির চেয়ে কেন্দ্রীয় সচিবের বেতন বেশি, আটকে বৃদ্ধির প্রস্তাবও]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে