BREAKING NEWS

৭ শ্রাবণ  ১৪২৮  শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কে পাবেন ‘পদ্ম সম্মান’, দেশবাসীকেই বেছে নেওয়ার ভার দিলেন প্রধানমন্ত্রী

Published by: Biswadip Dey |    Posted: July 11, 2021 3:44 pm|    Updated: July 11, 2021 4:59 pm

PM Narendra Modi turns to Twitter to seek nominations for People's Padma Award | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আপামর দেশবাসীর কাছে পদ্ম সম্মা‌নের জন্য প্রার্থী মনোনয়নের আবেদন জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Modi)। ৬৭ বছর আগে দেশে পদ্ম সম্মান (Padma Award) দেওয়ার প্রথা চালু হয়েছিল। এই প্রথম দেশবাসীর হাতেই তুলে দেওয়া হল মনোনয়নের ভার। রবিবার সকালে করা এক টুইটে এই আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

ঠিক কী লিখেছেন তিনি? নিজের টুইটারে (Twitter) প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, ‘‘ভারতে এমন বহু প্রতিভাবান মানুষ রয়েছেন যাঁরা তৃণমূল স্তর থেকে অসাধারণ কাজ করে চলেছেন। প্রায়শই আমরা তাঁদের অন‌েককেই দেখতে বা তাঁদের কথা শুনতে পাই না। আপনি কি এমন কাউকে চেনেন? তাহলে আপনি তাঁকে পদ্ম সম্মানের জন্য মনোনীত করতে পারেন। ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মনোনয়ন জমা দেওয়া যাবে।’’
এর জন্য কেন্দ্র একটি নতুন ওয়েবসাইট খুলেছে। padmaawards.gov.in নামের ওই ওয়েবসাইটে গিয়ে দেশের সাধারণ জনতা বেছে নিতে পারবেন তাঁর পছন্দের ‘পিপলস পদ্ম’-কে। এতদিন ধরে এই পুরস্কার দেওয়া হলেও এবার মোদি সরকার সেই পুরস্কারকে এক অন্য রূপ দিতে চাইছে।

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশ দিয়ে শুরু, ২৪-এর আগেই দেশে জন্ম নিয়ন্ত্রণ আইন আনবে মোদি সরকার!]

প্রসঙ্গত, ভারতে ১৯৫৪ সালে সর্বোচ্চ অসামরিক পুরস্কার ‘ভারতরত্ন’র পাশাপাশি ‘পদ্ম সম্মান’ও চালু করা হয়। পদ্মবিভূষণ, পদ্মভূষণ এবং পদ্মশ্রী- এই তিনটি বিভাগে বিভক্ত পদ্ম সম্মান। রাষ্ট্রপতি প্রতি বছর প্রজাতন্ত্র দিবসে এই সম্মানপ্রাপকদের হাতে পদক ও মানপত্র তুলে দেন।

২০১৪ সালে প্রথমবার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই মোদি সরকার প্রতি বছরই পদ্ম সম্মান দেওয়ার ক্ষেত্রে অজানা নায়কদের কথাও ভাবা শুরু করে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সমস্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, দপ্তর, রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের প্রশাসন, ভারতরত্ন ও পদ্ম বিভূষণজয়ীদের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে, সমাজের সব ক্ষেত্রেই এমন ধরনের মানুষকে চিহ্নিত করতে। সেই সঙ্গে এবার প্রধানমন্ত্রী দেশের সাধারণ মানুষের হাতেও তুলে দিলেন বিচারের ভার।

[আরও পড়ুন: ‘কমবেশি সকলেই হিন্দুদের বংশধর’, অসমের মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যে বিতর্ক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement