২২  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৭ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Presidential polls: রাষ্ট্রপতি ভোটে দ্রৌপদী মুর্মুর পক্ষে ব্যাপক ক্রস ভোটিং, খুশি বিজেপি নেতৃত্ব

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 22, 2022 9:01 am|    Updated: July 22, 2022 9:08 am

Presidential polls: Cross-voting for Murmu bares cracks in Opposition | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে দ্রৌপদী মুর্মু (Draupadi Murmu) জিতবেন সেটা প্রত্যাশিতই ছিল। কিন্তু কত ভোটের ব্যবধানে তিনি জয় পান সেটাই ছিল মূল আগ্রহের বিষয়। আরও একটি আগ্রহের বিষয় ছিল, বিরোধী শিবিরের কতজন ভোটারকে ভাঙিয়ে নিয়ে গিয়ে মুর্মুর পক্ষে ভোট দেওয়াতে পারে বিজেপি নেতৃত্ব। দিনের শেষে দেখা যাচ্ছে ভোটার ভাঙিয়ে ক্রস ভোটিং (Cross Voting) করানোর ব্যপারে ভালই সাফল্য পেয়েছে বিজেপি। এবং তাতে খুশি গেরুয়া নেতৃত্ব।

হিসাব বলছে, গোটা দেশে মোট ১২৬ জন বিধায়ক এবং ১৭ জন সাংসদ দ্রৌপদীর পক্ষে ক্রস ভোট করেছেন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্রস ভোটিং হয়েছে হিমন্ত বিশ্বশর্মার অসমে। কংগ্রেস (Congress) এবং বদরুদ্দিন আজমলের এআইইউডিএফের (AIDUF) মোট ২২ জন বিধায়ক ভোট দিয়েছেন দ্রৌপদী মুর্মুর পক্ষে। অসমের বিরোধী শিবির কতটা ছন্নছাড়া সেটা এই পরিসংখ্যানেই স্পষ্ট। ক্রস ভোটিংয়ে দ্বিতীয় স্থানে মধ্যপ্রদেশ। সেখানে ১৯ জন বিধায়ক ক্রস ভোট করেছেন। এদের প্রায় সকলেই কংগ্রেসের আদিবাসী বিধায়ক। দলের বিধায়কদের এই ‘দলবিরোধী’ পদক্ষেপ চিন্তায় রাখবে মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস (Congress) নেতৃত্বকেও।

[আরও পড়ুন: ভারতের রাষ্ট্রপতির ক্ষমতা কতটা? চাইলে কি সরকারের সঙ্গে সংঘাতে যেতে পারেন তিনি?]

ক্রস ভোটিংয়ে তৃতীয় স্থানে মহারাষ্ট্র। এখনও খাতায় কলমে বিরোধী শিবিরে আছেন এমন ১৬ জন বিধায়ক ক্রস ভোট করেছেন। যা চিন্তায় রাখবে শরদ পওয়ার (Sharadh Pawar) এবং কংগ্রেস নেতৃত্বকে। মোদির গুজরাটেও জনা দশেক কংগ্রেস বিধায়ক ক্রস ভোট করেছেন। গুজরাটে এ বছরের শেষেই ভোট। অথচ সেই রাজ্যেও বিধায়কদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারছে না কংগ্রেস নেতৃত্ব। হাত শিবিরকে আরও চিন্তায় রাখবে ঝাড়খণ্ডের পরিস্থিতি। সেরাজ্যে বিরোধীদের প্রার্থী যশবন্ত সিনহাকে (Yashwant Sinha) ভোট দিয়েছেন মাত্র ৯ জন বিধায়ক। হেমন্ত সোরেনের দল জেএমএম দ্রৌপদী মুর্মুর পক্ষে ভোট দেবে সেটা জানাই ছিল। কিন্তু পরে দেখা গেল কংগ্রেসেরও প্রায় অর্ধেক বিধায়ক ক্রস ভোট করেছেন। ঝাড়খণ্ডে এমনিতেই কংগ্রেসে ভাঙন নিয়ে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, এর মধ্যে আবার রাষ্ট্রপতি ভোটে সিনহার এই হতাশাজনক পারফরম্যান্স চিন্তায় রাখবে বিরোধী শিবিরকে। কংগ্রেস শাসিত ছত্তিশগড়ের ৬ বিধায়কও ক্রস ভোট করেছেন। ডামাডোলের মধ্যে ক্রস ভোট করেছেন গোয়ার ৪ কংগ্রেস বিধায়ক। সব মিলিয়ে ১৮টি রাজ্যে ক্রস ভোটিংয়ের সুবিধা পেয়েছেন দ্রৌপদী মুর্মু।

[আরও পড়ুন: কাউন্সিলর থেকে রাজ্যপাল হয়ে দেশের রাষ্ট্রপতি! কেমন ছিল দ্রৌপদী মুর্মুর রাজনৈতিক জীবন]

তবে এত ক্রস ভোটিংয়ের পরও ইউপিএ জমানার দুই রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীকে প্রাপ্ত ভোটের নিরিখে হারাতে পারেননি মুর্মু। ইউপিএ জমানায় রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী প্রতিভা পাতিল পেয়েছিলেন ৬৬ শতাংশ ভোট। আর প্রণব মুখোপাধ্যায় পেয়েছিলেন ৬৯ শতাংশ ভোট। এমনকী রামনাথ কোবিন্দও আগেরবার ৬৬ শতাংশ ভোট পান। সেখানে মুর্মু পেয়েছেন ৬৪ শতাংশ। সেটাই খানিক খচখচানির কারণ হয়ে থাকবে এনডিএ শিবিরের জন্য।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে