১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৭ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘ফেমাস’ হওয়ার চেষ্টা, শিখদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থের পাতা ছিঁড়ে রাস্তায় ছড়িয়ে ধৃত যুবক

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 4, 2020 3:16 pm|    Updated: November 4, 2020 3:19 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফেমাস হওয়ার জন্য শিখ সম্প্রদায়ের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ গুরু গ্রন্থ সাহিবের পাতা ছিঁড়ে রাস্তায় ছড়াল এক যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে পাঞ্জাবের লুধিয়ানায়। গত ২ নভেম্বর এই ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই উত্তেজনা দেখা যায়। এরপরই ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন লুধিয়ানার যুগ্ম পুলিশ কমিশনার কানোয়ারদীপ কৌর। গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্ত যুবককেও। তবে তার নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত সোমবার রাতে পাঞ্জাবের লুধিয়ানা (Ludhiana)’র টিব্বা রোড এলাকায় শিখদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ গুরু গ্রন্থ সাহিব (Guru Granth Sahib) -এর বেশ কয়েকটি ছেঁড়া পাতা পড়ে থাকতে দেখা যায়। আস্তে আস্তে খবরটি ছড়িয়ে পড়লে গোটা এলাকায় এই নিয়ে উত্তেজনা ছড়ায়। মঙ্গলবার এক যুবকের মাধ্যমে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। পরে সেখানে হাজির হন লুধিয়ানার যুগ্ম পুলিশ কমিশনার কানোয়ারদীপ কৌর।

[আরও পড়ুন: ‘লাভ জেহাদ’ রুখতে আইন আনবে কর্ণাটকও, ঘোষণা বিজেপির সাধারণ সম্পাদকের]

বুধবার এপ্রসঙ্গে লুধিয়ানার পুলিশ কমিশনার রাকেশ আগরওয়াল জানান, যে যুবক এই ঘটনার খবর পুলিশকর্মীদের দিয়েছিল তদন্ত করে জানা যায় সেই এই ঘটনার মূল অপরাধী। পরে জেরায় নিজের অপরাধের কথা স্বীকার করে ওই যুবক জানায়, ফেমাস (famous) হওয়ার জন্যই এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে সে। এছাড়া অন্য কোনও উদ্দেশ্য ছিল না।

এদিকে এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসার পরেই পাঞ্জাবের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ দেখান সাধারণ মানুষ। রাজ্যের শাসকদল কংগ্রেস ও আম আদমি পার্টির তরফে এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে অভিযুক্তের কড়া শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে। এই ধরনের ঘটনার মাধ্যমে পাঞ্জাবে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা চলছে বলেও তাদের অভিযোগ। গভীর এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে পাঞ্জাবের মানুষকে একজোট হওয়ার আহ্বানও জানায় তারা।

[আরও পড়ুন: অক্টোবরে রেকর্ড উৎপাদন! ধাক্কা সামলে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে অর্থনীতি, দাবি নির্মলার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement