BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘করদাতাদের টাকায় কেনা প্রধানমন্ত্রীর ৮ হাজার কোটির বিমান বিলাসিতা নয়?’ পালটা খোঁচা রাহুলের

Published by: Paramita Paul |    Posted: October 6, 2020 6:50 pm|    Updated: October 6, 2020 7:02 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কৃষিবিল বিরোধী ট্রাক্টর ব়্যালি নিয়ে হরিয়ানাতে ঢোকার মুখে বাধা পেলেন রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। পাঞ্জাব-হরিয়ানা সীমান্তে বেশ কিছুক্ষণ অপেক্ষার পর শর্তসাপেক্ষে তাঁকে হরিয়ানায় ঢুকতে দেওয়া হয়। পুলিশি বাধা নিয়ে রাহুলের বক্তব্য, “৫০০ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হলেও আমি করতাম।”

সংশোধিত কৃষি আইনের প্রতিবাদে আন্দোলনে উত্তাল গোটা দেশ। পাঞ্জাবে কৃষকদের আন্দোলনে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন রাহুল গান্ধী। তিনি তিনদিনের খেতি বাঁচাও ট্রাক্টর যাত্রার সূচনা করেন। মঙ্গলবার সেই তিনদিনের যাত্রার শেষদিন ছিল। এদিন, তিনি সঙ্গীদের নিয়ে পাঞ্জাব সীমানা পেরিয়ে হরিয়ানায় (Haryana) ঢোকার চেষ্টা করেন। সেই সময় একটি সেতুতে তাঁদের আটকে দেয় হরিয়ানা পুলিশ। সেখানেই কংগ্রেস কর্মীরা স্লোগান দিতে থাকে। বিক্ষোভ দেখায়। সেই সময় সংবাদমাধ্যমকে রাহুল বলেন, “ওঁরা আমাদের হরিয়ানা সীমানায় আটকে দিয়েছে। যতক্ষণ না এই বাধা তোলা হবে, আমি ততক্ষণ এখানে অপেক্ষা করব। সেটা দু’ঘণ্টা হলে দু’ঘণ্টা, পাঁচ ঘণ্টা হলে পাঁচ ঘণ্টা, ২৪ ঘণ্টা হলে ২৪ ঘণ্টা। আর ৫০০ ঘণ্টা হলে ৫০০ ঘণ্টাই অপেক্ষা করব।” এরপর রাহুল গান্ধীকে তিনটি ট্রাক্টর ও ১০০ জনকে নিয়ে ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে হরিয়ানায় প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়। 

[আরও পড়ুন : রাহুল নরম গদিতে বসা ‘ভিআইপি কৃষক’! কংগ্রেস নেতাকে কটাক্ষ স্মৃতি ইরানির]

এদিকে এদিন পাঞ্জাবে অকালি দলের তীব্র আক্রমণের মুখে পড়তে হয় রাহুলকে। বিজেপির পুরনো জোটসঙ্গী অকালি দলের প্রশ্ন, “সংসদে যখন কৃষিবিল পাশ হচ্ছিল তখন কোথায় ছিলেন? এখন কৃষকদের জন্য কুমীরের কান্না কাঁদছেন!” পালটা রাহুল বলেন, “আমার মা অসুস্থ। তিনি চিকিৎসার জন্য বাইরে গিয়েছিলেন। আমার বোন যেতে পারেনি। তাই গিয়েছিলাম। ছেল হিসেবও আমার কিছু দায়িত্ব আছে।”  ট্রাক্টর যাত্রা নিয়েও বিজেপির কটাক্ষের মুখে পড়েন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি। গেরুয়া শিবিরের কথায়,”গদিতে বসে ট্রাক্টর চালিয়ে কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর নাটক করছেন রাহুল।” এই খোঁচার জবাবে প্রধানমন্ত্রী নতুন এ-ওয়ান বিমান কেনার প্রসঙ্গ টেনে আনেন তিনি। বলেন, “প্রধানমন্ত্রী যদি করদাতাদের টাকায় ৮ হাজার কোটি টাকার এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানে চড়তে পারেন তাহলে আমি কেন কুশন দেওয়া ট্র্যাক্টরে বসতে পারি না?” প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগেই মার্কিন রাষ্ট্রপতির বিমানের ধাঁচে তৈরি মোদির নতুন বিমান ভারতে এসেছে। 

[আরও পড়ুন : ঘোর অশনি সংকেত! চলতি অর্থবর্ষে দেশে বিনিয়োগের পরিমাণ ১৬ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement