BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এবার রেল ভবনে করোনার থাবা, সংক্রমণের আশঙ্কায় বন্ধ কাজকর্ম

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: May 15, 2020 1:42 pm|    Updated: May 15, 2020 1:42 pm

An Images

ফাইল ফটো

সুব্রত বিশ্বাস: এবার করোনা থাবা বসালো রেল ভবনে। সংক্রমণের আশঙ্কায় বৃহস্পতিবার থেকে বন্ধ হয়ে গিয়েছে রেলবোর্ড। শুরু হয়েছে স্যানিটাইজ করার প্রক্রিয়া। এজন্যে বৃহস্পতি ও শুক্রবার দু’দিন বন্ধ থাকছে রেলমন্ত্রকের সংশ্লিষ্ট বোর্ড। সম্পুর্ন ভবন বন্ধ রাখার কারণ, আরপিএফ ডিজির অর্ডারলি এক কর্মী করোনায় আক্রান্ত। বিষয়টি নজরে আসতেই ভবন বন্ধ করে স্যানিটাইজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়। আরপিএফ ডিজির দপ্তর ভবনের চতুর্থ তলে। ফলে স্যানিটাইজ করার কাজ সেখান থেকেই শুরু হয়েছে।

[আরও পড়ুন: শবরীমালায় ঢোকার চেষ্টায় হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত রেহানার! অবসরের নির্দেশ BSNL-এর]

বৃহস্পতি ও শুক্রবার দুদিনের বন্ধ করার পাশাপাশি শনি ও রবিবার এমনিতেই ছুটি ফলে চারদিনে গোটা ভবনটি ভালভাবে সানিটাইজ করা হবে। ঘটনা জানাজানি হতেই ডিজিকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর দাবি তুলেছেন অফিস কর্মীরা। তাঁদের কথায়, অর্ডারলি সরাসরি ডিজির কাছের কর্মী। ফলে আইন মেনে ডিজিরও কোয়ারেন্টাইনে যাওয়া উচিত।

উল্লেখ্য, গত কয়েক দিনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বেশ কয়কজন আরপিএফ জওয়ান। দরিদ্র নানুষদের খাবার পৌঁছে দেওয়া, মালগাড়ি থেকে পার্সেল ভ্যান এবার শ্রমিক স্পেশ্যাল ও এসি স্পেশ্যাল ট্রেনে একেবারে ফ্রন্ট লাইনে কাজ করছেন। যে পরিমাণ সুরক্ষা থাকা দরকার তা নেই বলে অভিযোগ। সংক্রমণ একেবারে প্রথম শ্রেণির অফিসারদের ঘরে ঢুকে পড়ায় চিন্তা বেড়েছে প্রশাসনের। এদিকে, দেশে একটানা ৫০ দিন লকডাউন চলার পরেও অব্যাহত মারণ ভাইরাসের দাপট। কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান বলছে, ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ৮২হাজারের গণ্ডি পেরিয়েছে। মৃত্যুও আড়াই হাজার পেরিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গেও বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ২৩৭৭ জনের শরীরে করোনার জীবাণু মিলেছে।

[আরও পড়ুন: ‘আদালত নয়, পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে সিদ্ধান্ত নিক রাজ্য’, সুপ্রিম কোর্টে খারিজ পিটিশান]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement