BREAKING NEWS

১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

এসি কামরায় যাত্রীদের আর কম্বল দেবে না রেল!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 30, 2017 6:22 am|    Updated: July 30, 2017 6:31 am

Railways plans to discontinue providing blankets in some AC trains

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় রেলে যাত্রীদের যে চাদর-বালিশ-কম্বল দেওয়া হয়, তার গুণগত মান নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছে দ্য কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল(ক্যাগ)। আর সমালোচনার মুখে পড়ে বেশ কয়েকটি ট্রেনে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কামরায় যাত্রীদের আর কম্বল-চাদরই দিতে চাইছে না রেল। এমনকী, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কামরায় যাতে যাত্রীদের কম্বলের প্রয়োজন না হয়, সেজন্য এসির তাপমাত্রাও বাড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে।

[মাসের পর মাস কাচা হয় না রেলের কম্বল-চাদর, বিস্ফোরক রিপোর্ট দিল ক্যাগ]

সম্প্রতি ভারতীয় রেলে যাত্রীদের যে চাদর-বালিশ-কম্বল দেওয়া হয়, তার গুণগতমান নিয়ে সংসদে একটি রিপোর্টে পেশ করে ক্যাগ। রিপোর্টে বলা হয়েছে, রেলে যে চাদর, কম্বল বা বালিশ যাত্রীদের দেওয়া হয় তা অত্যন্ত নোংরা ও অপরিচ্ছন্ন। রেলের নিয়ম মেনে সেগুলির সাফাই করা হয়। এ বিষয়ে রেলকে একটি সুনির্দিষ্ট বিধি তৈরি করার পরামর্শ দিয়েছে ক্যাগ। প্রসঙ্গত, রেলে নিয়ম অনুসারে, প্রত্যেকবার যাত্রীদের গায়ে দেওয়ার চাদর, বালিশের কভার কাচা উচিত। কম্বলগুলি প্রতি দু’মাস অন্তর ড্রাই-ওয়াশ করতে দেওয়া উচিত। কিন্তু, বাস্তবে সেই নিয়ম মানা হয় না জানিয়েছে ক্যাগ। এই প্রেক্ষাপটেই এবার ট্রেনের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কামরায় যাত্রীদের চাদর দেওয়া বন্ধ করে দিতে চাইছে রেল। রেলের এক পদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, বেশ কয়েকটি ট্রেনের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কামরায় যাত্রীদের চাদর-কম্বল না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি, পরীক্ষামূলকভাবে কামরায় এসির তাপমাত্রা ১৯ ডিগ্রি থেকে বাড়িয়ে ২৪ ডিগ্রি করে রাখা হবে। ফলে যাত্রীদের চাদরের দরকারই হবে না। তবে এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে আর্থিকভাবেও লাভবান হবে রেল। রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, চাদর, কম্বল ও বালিশের কভারের একটি সেট কাচতে খরচ হয় ৫৫ টাকা। কিন্তু, যাত্রীদের কাছ থেকে নেওয়া হয় মাত্র ২২ টাকা।

[ট্রেনের এসি খারাপ, যাত্রীকে ১২ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ]

প্রসঙ্গত, গত বছর থেকেই একটি নতুন প্রকল্প চালু করেছে রেল। এই প্রকল্পের IRCTC-র ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আলাদাভাবে চাদর, কম্বল বা বালিশ বুক করতে পারেন যাত্রীরা। স্টেশনের কাউন্টার থেকে সরাসরি কিনেও নেওয়া যায়। ট্রেনে ব্যবহার করার পর, সেগুলি বাড়ি নিয়ে যেতে পারেন যাত্রীরা।

[গো-মাংস রপ্তানিতে ভারত বিশ্বে কত নম্বরে জানেন?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে