BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ভাগ্যের পরিহাস! সড়ক নির্মাণ মন্ত্রীর বাড়িতেই ঢুকল বর্ষার জল, হাসির রোল নেটদুনিয়ায়

Published by: Sulaya Singha |    Posted: June 28, 2020 6:27 pm|    Updated: June 28, 2020 6:27 pm

Rainwater enters residence of Bihar Road Construction Minister

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একেই বোধহয় বলে ভাগ্যের পরিহাস। যাঁর কাঁধে গোটা এলাকাকে বানভাসী অবস্থা থেকে রক্ষা করার দায়িত্ব, সেই মন্ত্রীর বাড়িতেই কিনা বর্ষার জল ঢুকে পড়ল!

গত দু’দিন ধরে বর্জ্র-বিদ্যুৎ-সহ লাগাতার বৃষ্টিতে নাজেহাল বিহার। সে রাজ্যের বিভিন্ন রাস্তায় জল জমে। ফলে যানবাহন চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। চূড়ান্ত ভোগান্তির শিকার স্থানীয়রা। সামান্য বৃষ্টি হলেই রাস্তায় জল জমে যায়। পর্যাপ্ত জলনিকাশী ব্যবস্থা না থাকায় যা নামতে অনেকটা সময় লাগে। এ সমস্যা দীর্ঘদিনেরই। এলাকাবাসীরা অসুবিধার কথা জানালেও তা কানে তোলেনি প্রশাসন। এবার তারই ‘ফল’ ভোগ করতে হল সড়ক নির্মাণ মন্ত্রী (Road Construction Minister) নন্দকিশোর যাদবকে। বৃষ্টির জল জমা হতে হতে তা একেবারে ঢুকে পড়ল তাঁর পাটনার বাড়ির ভিতর।

এমন পরিস্থিতিতে অবশ্য ভাঙলেও মচকাচ্ছেন না মন্ত্রীমশাই। এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, “ওই জায়গার জল যেখান দিতে বের হয়, সেই অংশটা কোনওভাবে ব্লক হয়ে গিয়েছে। সেটি খুলে গেলেই সব জল বেরিয়ে যাবে।” অর্থাৎ নন্দকিশোর যাদব যেন বুঝিয়ে দিতে চাইলেন, এটি ব্যতিক্রমী ঘটনা। কিন্তু বিহারবাসীকে প্রতিদিনই বৃষ্টির জন্য সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। পাটনার পাশাপাশি রাজবাঁশী নগর, রাজেন্দ্র নগর-সহ বিভিন্ন এলাকার রাস্তারই বর্ষাকালে বেহাল দশা হয়। কিন্তু সরকারের কোনও হেলদোল নেই। উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগেই বাজ পড়ে শুধু বিহারেই দু’দিনে প্রাণ হারিয়েছেন ৯০ জনেরও বেশি মানুষ। তারপরও ছবিটা একইরকম।

সংবাদ সংস্থা এএনআই মন্ত্রীর বাড়িতে জমা জলের সেই ছবি টুইট করার পর থেকেই হাসির রোল নেটদুনিয়ায়। অনেকেই বলছেন, রাজ্যবাসীর ভাল-মন্দের খেয়াল না রাখার কর্মফলই পেলেন মন্ত্রী। কেউ কেউ আবার কটাক্ষের সুরে লিখেছেন, মন্ত্রীর বাড়ি পর্যন্ত বিকাশ পৌঁছে গিয়েছে। নেটিজেনদের আশা, এই ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়েই হয়তো রাস্তা ঠিক করার উদ্যোগ নেবেন মন্ত্রী।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে