×

৮ ফাল্গুন  ১৪২৫  বৃহস্পতিবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৮ ফাল্গুন  ১৪২৫  বৃহস্পতিবার ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

মণিশংকর চৌধুরি, শিলং: কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ পর্বে নয়া মোড়। রাজীব কুমারের আগেই মঙ্গলবার সিবিআই দপ্তরে ঢুকতে দেখা গেল এক রহস্যময় ব্যক্তিকে। ‘মাঙ্কি ক্যাপে’  মুখ ঢেকে ওই ব্যক্তিকে সিবিআই দপ্তরে ঢোকানো হয়। সংবাদমাধ্যম বা অন্য কেউ যাতে ওই ব্যক্তিকে চিনতে না পারেন তা নিশ্চিত করতে নজিরবিহীন গোপনীয়তা বজায় রাখেন সিবিআই আধিকারিকরা। ওই ব্যক্তি সিবিআই দপ্তরে প্রবেশ করেন সারদার তদন্তকারী আধিকারিকদের সঙ্গেই। যে গাড়িতে ওই ব্যক্তিকে নিয়ে যাওয়া হয় সেই গাড়িটির সামনে বসেছিলেন সারদার তদন্তকারী আধিকারিক তথাগত বর্ধন। পিছনের সিটে মোট ৩ জন বসেছিলেন। তাদের মধ্যে দু’জন সিবিআই আধিকারিক।দুই সিবিআই আধিকারিকের মাঝখানে বসেছিলেন ওই রহস্যময় ব্যক্তি। রাজীব কুমার সিবিআই দপ্তরে প্রবেশ করার মিনিট দশেক আগেই প্রবেশ করে গাড়িটি।

[‘নৈতিক জয় হয়েছে’, তৃতীয় দিনের জিজ্ঞাসাবাদের পর দাবি কুণাল ঘোষের]

কে এই রহস্যময় ব্যক্তি ? এ বিষয়ে স্পষ্ট কোনও ধারণা নেই। কেনই বা তাঁকে ডাকা হয়েছে তাও স্পষ্ট নয়। তবে সূত্রের খবর, ওই ব্যক্তি রাজ্য পুলিশের প্রাক্তন ডিজিপি রজত মজুমদার হতে পারেন। কিন্তু এত গোপনীয়তা কেন? কেন এই ব্যক্তির পরিচয় প্রকাশ্যে আসছে না, তা স্পষ্ট নয়। সূত্রের খবর, ডাকা হতে পারে সারদা গ্রুপের ভাইস প্রেসিডেন্ট সোমনাথ দত্তকেও।

[তৃতীয় দিনের জেরা শেষ, মঙ্গলবার ফের তলব রাজীব কুমারকে]

এদিকে চতুর্থ দিনের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওকল্যান্ডে সিবিআই দপ্তরে হাজির হয়েছেন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারও। সকাল ১০ টা ৪০ নাগাদ সিবিআই দপ্তরে পৌঁছান তিনি। সিবিআইয়ের তদন্তকারী দলের সদস্যরা অবশ্য সকাল ১০ টা ১০ মিনিট নাগাদই ওকল্যান্ড দপ্তরে ঢুকে যান।সিবিআই দপ্তরে যান রোজভ্যালি কাণ্ডের তদন্তকারী আধিকারিক সোজম শেরপাও। রহস্যময় ওই ব্যক্তিকে আনা হয় ১০ টা ৪০ নাগাদ। এদিকে, ভুবনেশ্বর এবং দিল্লি থেকে, সিবিআইয়ের আরও দুই এসপি পদমর্যাদার আধিকারিক শিলং পৌঁছেছেন। সূত্রের খবর, আজ টাওয়ার গ্রুপ সংক্রান্তও বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে রাজীব কুমারকে।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং