২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসেবে নয়া নজির গড়লেন রাজনাথ সিং। বৃহস্পতিবার, প্রথম প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসেবে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি তেজস যুদ্ধবিমানে সওয়ার হলেন তিনি। এদিন,  ‘হিন্দুস্তান এরোনটিকস লিমিটেড’-এর বেঙ্গালুরুর বিমানঘাঁটি থেকে রাজনাথকে নিয়ে ডানা মেলে তেজস।

[আরও পড়ুন: দেউচা-পাচামির উদ্বোধন করতে আসুন, প্রধানমন্ত্রীকে রাজ্যে আমন্ত্রণ মুখ্যমন্ত্রীর]

এদিন, ৩০ মিনিটের উড়ান সফর শুরুর আগে ‘ফ্লাইং ড্যাগার’ স্কোয়াড্রনের পাইলটরা রাজনাথ সিং-কে দেশীয় এই যুদ্ধবিমানের খুঁটিনাটি সম্পর্কে বোঝান। তাঁর এই সফরে বিমানটি চালান এয়ার ভাইস মার্শাল এন তিওয়ারি। প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার, গোয়ায় বিমানবাহী রণতরীতে নামার পরীক্ষায় সফলভাবে উতরে যায় তেজস। ফাইনাল অপারেশন ক্লিয়ারেন্স পাওয়ার পর ২০১৮ সালের জুন মাস থেকে ভারতীয় বায়ুসেনার সংগ্রহে রয়েছে ১৬টি তেজস। নৌসেনার ব্যবহারের জন্যেও তৈরি হচ্ছে বিশেষ ধরনের এলসিএ তেজস। এই সফরকে এক দারুণ অভিজ্ঞতা বলে টুইট করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। সেখানেই নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন তিনি। ভারতীয় বাযুসেনাকে আর শক্তিশালী করে তুলবে বিমানটি বলে মন্তব্য করেন রাজনাথ।

তেজস যুদ্ধবিমানটি বানিয়েছে সামরিক বিমান প্রস্তুতকারী সংস্থা হ্যাল। ‘লাইট কমব্যাট এয়ারক্রাফট’টি সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মীত। বায়ুসেনার জরাগ্রস্ত মিগ-২১ বিমানগুলির জায়গা নেবে তেজস। ইতিমধ্যেই একাধিক পরীক্ষায় সফলভাবে উতরেছে বিমানটি। গতবছর প্রায় ২০ হাজার ফুট উচ্চতায় রুশ নির্মিত ‘আইএল-৭৮’ জ্বালানিবাহী বিমান থেকে ইন্ধন ভরা হয় তেজসে। স্বল্প সময়েই প্রায় ১৯ হাজার লিটার জ্বালানি পৌঁছে যায় যুদ্ধবিমানটির পেটে।  মাঝ আকাশে জ্বালানি ভরে বিশ্বের প্রথম সারির সামরিক শক্তির তালিকায় নাম লেখায় ভারত।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং