২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ধর্ষণের মামলা প্রত্যাহারে ‘না’, নির্যাতিতাকে গুলি করে খুন অভিযুক্তের

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 19, 2019 2:21 pm|    Updated: January 19, 2019 2:21 pm

Rape survivor shot dead

ফাইল ছবি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধর্ষণের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন৷ সুবিচার পেতে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন৷ এটাই ছিল নির্যাতিতার ‘অপরাধ’৷ ধর্ষণের মামলা প্রত্যাহারে রাজি হননি তিনি৷ তাই প্রাণ দিয়ে ‘অপরাধের’ মাশুল গুনলেন নির্যাতিতা৷ এমনই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটল গুরগাঁওতে৷ 

[মালাবদলের পরই বিয়ের আসরে চলল গুলি, জখম কনে]

পুলিশ সূত্রে খবর, ২০১৭ সালের মার্চে বছর বাইশের ওই তরুণীকে ধর্ষণ করা হয়৷ এই ঘটনায় সন্দীপ কুমার নামে ফরিদাবাদের বাসিন্দা এক যুবকের নাম জড়ায়৷ পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতা৷ তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার পরপরই সন্দীপকে গ্রেপ্তার করা হয়৷ বেশ কয়েকদিন পুলিশ হেফাজতে ছিল সে৷ পরে জামিনে মুক্তি পেয়ে যায় সন্দীপ কুমার৷ পুলিশ হেফাজত থেকে বেরিয়ে সে একটি পানশালায় বাউন্সারের কাজ করছিল৷ অভিযোগ, জামিনে মুক্তি পাওয়ার পরই সন্দীপ ওই নির্যাতিতাকে মামলা প্রত্যাহারের জন্য চাপ দেয়৷ যদিও তাতে রাজি ছিলেন না তরুণী৷ তা নিয়ে দু’জনের দ্বন্দ্ব চলছিল৷ এদিকে, সন্দীপের চোখরাঙানিকে অগ্রাহ্য করে ধর্ষণের মামলার স্বার্থেই গত শুক্রবার নির্যাতিতার বয়ান রেকর্ড করাতে গিয়েছিলেন তরুণী৷ থানা থেকে সন্ধের আগেই বাড়িও ফিরে আসেন তিনি৷ তরুণীর মায়ের অভিযোগ, সন্ধেবেলা তাঁর মেয়েকে ফোন করে সন্দীপ৷ মামলা প্রত্যাহার না করলে খুনেরও হুমকি দেওয়া হয়৷ তবে তাতে রাজি হননি নির্যাতিতা৷ ফোনে কথা কাটাকাটি হয় দু’জনের৷ ফোনেই প্রাণনাশের হুমকিও দেয় সন্দীপ৷ এর কিছুটা পরই সন্দীপ বাড়িতে আসে৷ জোর করে তরুণীকে বাড়ি থেকে বের করে নিয়ে যায় বলেও অভিযোগ৷ তারপরই নিখোঁজ হয়ে যান নির্যাতিতা৷ বেশ কিছুটা পর গুরগাঁও-ফরিদাবাদ এক্সপ্রেসওয়েতে নির্যাতিতার দেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা৷

[উন্নয়ন নিয়ে প্রশ্ন, জবাবে মিলল খাম ভরতি কন্ডোম]

খবর পেয়েই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়৷ তরুণীর দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়৷ পুলিশের দাবি, গুলি করে খুন করা হয়েছে নির্যাতিতাকে৷ তাঁর শরীরে চারটি গুলির চিহ্ন পাওয়া গিয়েছে৷ ঘটনার পর থেকে সন্দীপের কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না৷ তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে