BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

চেকে টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে বড়সড় বদল আনল RBI, জেনে নিন নয়া নিয়ম‌

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: September 27, 2020 11:01 pm|    Updated: September 27, 2020 11:18 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ চেকের মাধ্যমে জালিয়াতি!‌ মাঝেমধ্যেই শিরোনামে আসে এই সংক্রান্ত একাধিক খবর। জালিয়াতদের খপ্পরে পড়ে বিপাকে পড়েন অনেকেই। তবে এবার চেকের মাধ্যমে টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে জালিয়াতি বন্ধ করতে বড় পদক্ষেপ করার পথে রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া (RBI)। চেকে ৫০ হাজার টাকার বেশি পেমেন্ট করতে গেলে নতুন পদ্ধতিতে তা যাচাই করা হবে। আগামী বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ‘পজিটিভ পে সিস্টেম’ (‌Positive Pay system) নামে এই পদ্ধতি কার্যকর হবে। এমনটাই জানানো হয়েছে রিজার্ভ ব্যাংকের পক্ষ থেকে।

[আরও পড়ুন: রেলে চাকরির টোপ দিয়ে ডেকে ভোপাল স্টেশনে যুবতীকে ধর্ষণ, ধৃত আধিকারিক]

কিন্তু কী এই ‘পজিটিভ পে সিস্টেম’?‌ জানা গিয়েছে, এই ব্যবস্থায় ৫০ হাজার টাকা বা তার বেশি টাকার চেক হলে সই মেলানো ছাড়াও অন্যান্য আরও তথ্য যাচাই করবে ব্যাংক। তবে যিনি চেক দিচ্ছেন, সেই গ্রাহক চাইলে তবেই এই সুবিধা মিলবে। যদিও ৫ লক্ষ টাকা বা তার বেশি অংকের চেকের ক্ষেত্রে ‘পজিটিভ পে সিস্টেম’ বাধ্যতামূলক হতে পারে। এই পদ্ধতিতে, কাউকে চেক দেওয়ার পরে প্রাপক সেটি ব্যাংকে জমা দিলেই পেমেন্ট পাবেন না। যিনি চেক দিয়েছেন তাঁকে ব্যাংকের চাহিদা মতো কিছু তথ্য দিতে হবে। এসএমএস, মোবাইল অ্যাপ, ইন্টারনেট ব্যাংকিং বা এটিএম–এর মাধ্যমে চেকের তারিখ, কার নামে দেওয়া হয়েছে, টাকার অঙ্ক–সহ একাধিক তথ্য জানাতে হবে। এর পরেই চেক মারফৎ দেওয়া টাকা গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে অন্য অ্যাকাউন্টে যাবে।

[আরও পড়ুন: শুধু ফুসফুস নয়, করোনায় ক্ষতি হয় হার্ট এবং কিডনিরও! নয়া আশঙ্কা স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কথায়]

RBI‌–এর নির্দেশ অনুযায়ী, চেক এবং গ্রাহকের দেওয়া তথ্য মেলার পরেই হবে লেনদেন। একটি ব্যাংকের চেক অন্য ব্যাংক থেকে ভাঙানোর যে ব্যবস্থা (চেক ট্রানজাকশন সিস্টেম), তাতে কোনও গরমিল ধরা পড়লে দুই ব্যাংকই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে। NPCI‌–এর তরফ থেকে ব্যাংকগুলোকে ‘পজিটিভ পে সিস্টেম’–এর অন্তর্ভূক্ত করা হবে। আগামী বছর থেকে এই নতুন ব্যবস্থা চালু হলেও এখন থেকেই ব্যাংকগুলোকে গ্রাহকদের এ ব্যাপারে সচেতন করার নির্দেশ দিয়েছে আরবিআই। এর জন্য গ্রাহকদের এসএমএস পাঠিয়ে নতুন ব্যবস্থা সম্পর্কে জানাতে হবে। এছাড়াও ব্যাংকের সব শাখায় এই সংক্রান্ত সমস্ত নিয়ম লিখিত আকারে রাখতে হবে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement