BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২১ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সরকারের আচরণে ক্ষোভ, পদত্যাগ করতে পারেন আরবিআই গভর্নর উর্জিত প্যাটেল

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 31, 2018 3:49 pm|    Updated: October 31, 2018 3:49 pm

RBI Gov. Urjit Patel may resign

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্রের সঙ্গে বিবাদের জেরে কী এবার পদত্যাগের পথে হাঁটতে চলেছেন রিজার্ভ ব্যাংকের গভর্নর উর্জিত প্যাটেল? এমনই জল্পনা শুরু হয়েছে কয়েকটি জাতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরের পর। একাধিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির সঙ্গে সম্পর্ক তলানিতে ঠেকায় এবার পদত্যাগের কথা ভাবছেন উর্জিত। যদিও, এ প্রসঙ্গে সরকারিভাবে সরকার বা রিজার্ভ ব্যাংক কোনও তরফই সরকারিভাবে মুখ খোলেননি। নীরব মোদি কাণ্ডের পরই একপ্রস্থ ঝামেলা হয়েছিল উর্জিত প্যাটেল এবং অরুণ জেটলির মধ্যে। তারপর ধীরে ধীরে সেই ফাটল আরও চওড়া হয়েছে। সম্প্রতি লাগাতার টাকার মূল্যে পতন, বন্ড বিক্রি-সহ একাধিক ইস্যুতে দুই শিবিরের মত-পার্থক্য হয়, এবং এর জেরে প্রকাশ্যে চলে আসে দুই শিবিরের দ্বন্দ্ব।

[রাফালে ধাক্কা কেন্দ্রের, ১০ দিনের মধ্যে দাম জানানোর নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের]

গত সপ্তাহে একটি বিস্ফোরক বক্তব্যে রিজার্ভ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর সরাসরি শীর্ষ ব্যাংকের কাজে কেন্দ্রে হস্তক্ষেপের অভিযোগ আনেন। তিনি বলেন, কেন্দ্র টি-২০ খেলছে, আমরা টেস্ট খেলি। মূলত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কার্যকলাপে কেন্দ্রের বিধি নিষেধ নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন রিজার্ভ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর। তিনি বলেন, বললেন, “অনেক সময় ব্যাংকের ঋণ দেওয়ার পদ্ধতিতে হস্তক্ষেপ করছে কেন্দ্র। নিয়মে শিথিলতা আনার জন্য বারবার চাপ দেওয়া হচ্ছে। এর ফলে প্রদেয় ঋণ পুনরুদ্ধারের ক্ষেত্রে ঝুঁকি বেড়ে যাচ্ছে। বলা বাহুল্য, আরবিআই ডেপুটি গভর্নরের বক্তব্যকে ভালভাবে নেয়নি কেন্দ্র। এরপর প্রকাশ্যেই আরবিআইয়ের সমালোচনায় সরব হন জেটলি। তিনি বলেন, ২০০৮ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ইউপিএ সরকার যথেচ্ছভাবে ঋণ দিয়ে গিয়েছে, সেসময় রিজার্ভ ব্যাংকের নজর অন্যদিকে ছিল।

[সর্দারের অভিষেক, বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু মূর্তি উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী]

এরপরই কেন্দ্রীয় সরকার সূত্রে খবর পাওয়া যায়, রিজার্ভ ব্যাংকের ক্ষমতা খর্ব করতে নজিরবিহীনভাবে আরবিআই আইনের ৭ নম্বর ধারাটি ব্যবহার করতে চলেছে কেন্দ্র। যাতে বলা হয়েছে, জনগণের স্বার্থে কেন্দ্র চাইলে আরবিআইয়ের কাজেও হস্তক্ষেপ করতে পারে। উল্লেখযোগ্যভাবে স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে একবারও এই আইন ব্যবহার করেনি কোনও সরকার। এই ব্যবহারের খবর রটতেই উর্জিত প্যাটেলের পদত্যাগ নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে যায়। আর এর জেরে আরও কমেছে টাকার দর।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে