BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

আর চিন্তা নেই, দেশের সর্বত্র ছ’দিনেই পৌঁছে যাবে নোট

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 22, 2016 9:00 am|    Updated: November 22, 2016 9:00 am

RBI’s Step, Only 6 Days To Get New Currency Notes

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নোট বাতিলের ১৩ দিনে মোটের উপর পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলেও, আরও স্বাচ্ছন্দ্যের জন্য একগুচ্ছ পদক্ষেপ করল কেন্দ্র সরকার ও রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া৷ একদিকে সরকার ছাপাখানা থেকে নতুন নোট বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহের জন্য বরাদ্দ সময় ২১ দিন থেকে কমিয়ে ছ’দিন করেছে৷ বীজ কেনার ক্ষেত্রে কৃষকদের পুরনো ৫০০ টাকার নোটও ব্যবহারে ছাড় দেওয়া হয়েছে৷ তেমনই, ওভারড্রাফট ও ক্যাশ ক্রেডিট অ্যাকউন্ট থেকে সপ্তাহে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত তোলার অনুমতি দিয়েছে শীর্ষ ব্যাঙ্ক৷ ঋণগ্রাহকদের ঋণ পরিশোধের জন্য অতিরিক্ত ৬০ দিন সময় দেওয়া হয়েছে৷ আবার, কেন্দ্রীয় সরকারি গ্রুপ সি-র চাকুরেরা এদিন থেকেই ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন নগদে তুলতে পারছেন৷ অন্যদিকে, ব্যাঙ্কের সামনে পুরনো নোট বদল বা জমা কিংবা এটিএমের সামনে টাকা তোলার লাইন অনেকটা ছোট হয়ে এসেছে৷ সপ্তাহের প্রথম দিন, সোমবার সারা দেশের নিরিখে এটাই ছিল সার্বিক চিত্র৷ যদিও, গ্রামীণ ভারতের বিভিন্ন অংশে এদিনও নোট-যন্ত্রণার বিচ্ছিন্ন খবরও মিলেছে৷
দেশের বিভিন্ন অংশ থেকে নগদ সঙ্কটের যে অভিযোগ আসছে তা মোকাবিলায় এবার বড়সড় পদক্ষেপ করল কেন্দ্র৷ সাধারণ সময়ে ছাপাখানা থেকে বিভিন্ন কেন্দ্রে নোট সরবরাহের জন্য ২১ দিন সময় বরাদ্দ৷ কিন্তু, বর্তমান পরিস্থিতিতে কেন্দ্র জানিয়েছে, সব ক্ষেত্রেই ছাপাখানা থেকে টাকা ছ’দিনের মধ্যেই গন্তব্যে পৌঁছতে হবে৷ রেলপথ ছাড়াও হেলিকপ্টার ও ভারতীয় বায়ুসেনার বিমানে করে দেশের বিভিন্ন অংশে নোট সরবরাহ করা হচ্ছে৷ কেন্দ্র মনে করছে, আগামী সপ্তাহেই শহরাঞ্চলে পরিস্থিতি পুরোপুরি স্বাভাবিক হয়ে যাবে৷ গ্রামীণ এলাকার দিকেই তাই আপাতত বেশি মনসংযোগ করা হচ্ছে৷ এর ফলে, দেশের সর্বত্র নোট-সঙ্কট দ্রুত মিটবে বলে আশা করা হচ্ছে৷
খরিফ মরশুমে চাষের জন্য জমি তৈরি থাকলেও নোট-সঙ্কটের কারণে কৃষকরা বীজ ও সার কিনতে পারছেন না বলে দেশের বিভিন্ন অংশ থেকে অভিযোগ আসছিল৷ সেক্ষেত্রে সোমবার কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রক ঘোষণা করেছে, রাজ্য বা কেন্দ্র সরকারি বা অধিগৃহীত বিপণি এবং কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ এগ্রিকালচারাল রিসার্চ (আইসিএআর) থেকে কৃষকরা ৫০০ টাকার পুরনো নোটেই বীজ ও সার কিনতে পারবেন৷ তবে তাঁদের পরিচয়পত্র দেখাতে হবে৷ অর্থমন্ত্রকের এক আধিকারিক জানান, সরকার কিছুতেই চায় না, খরিফ মরশুমে চাষ মার খাক৷ সে কারণে যা যা পদক্ষেপ করা উচিত, সরকার তা করছে৷ উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবারই সরকার ঘোষণা করে, কৃষকরা কৃষিঋণের আওতায় ব্যাঙ্ক থেকে সপ্তাহে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত তুলতে পারবেন৷ তাতেও সঙ্কট না মেটায়, কৃষকদের জন্য নিয়ম আরও শিথিল করল কেন্দ্র৷ একইসঙ্গে সরকার শস্য বিমার প্রিমিয়াম জমার জন্য কেন্দ্র অতিরিক্ত ১৫ দিন সময় দিয়েছে৷ এপিএমসি নথিভুক্ত ব্যবসায়ীদের সপ্তাহে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ব্যাঙ্ক থেকে তোলার ক্ষেত্রে অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্র৷
গত সপ্তাহেই ব্যবসায়ীদের আর্থিক লেনদেনে সুবিধার জন্য কারেন্ট অ্যাকাউন্ট থেকে সপ্তাহে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত তোলার অনুমতি দিয়েছিল আরবিআই৷ সোমবার নিয়ম আরও কিছুটা শিথিল করেছে কেন্দ্র৷ ওভারড্রাফট অ্যাকাউন্ট বা ক্যাশ ক্রেডিট অ্যাকাউন্ট থেকেও সপ্তাহে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত তোলায় অনুমতি দিল কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক৷ তবে সেক্ষেত্রে অ্যাকাউন্ট আগের তিন মাস ‘অ্যাক্টিভ’ থাকতে হবে৷ তবে ব্যক্তিগত ওভারড্রাফট অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে এই উর্ধ্বসীমা শিথিলের নিয়ম প্রযোজ্য নয়৷ গ্রাহককে সব ২ হাজার টাকার নোটে দেওয়া হবে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে