BREAKING NEWS

১৩ ফাল্গুন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

অরুণাচলে চিনা গ্রাম নিয়ে মোদিকে বিঁধলেন রাহুল গান্ধী, পালটা দিল গেরুয়া শিবিরও

Published by: Biswadip Dey |    Posted: January 19, 2021 2:40 pm|    Updated: January 19, 2021 3:01 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অরুণাচল প্রদেশের (Arunachal Pradesh) বিতর্কিত অঞ্চলে গ্রাম তৈরি করেছে চিন (China)। গতকালই এবিষয়ে মুখ খুলেছে ভারত। উপগ্রহ চিত্রে ধরা পড়েছে চিনের তৈরি নতুন গ্রামে রয়েছে ১০১টি বাড়ি। এবার সেই ইস্যুতে ফের মোদি সরকারকে বিঁধলেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। মঙ্গলবার সকালে এক টুইটে তিনি ওই খবরের একটি রিপোর্ট তাঁর টুইটে জুড়ে দিয়ে লেখেন, ”মনে করুন ওঁর প্রতিশ্রুতি। আমি দেশকে কারও সামনে ঝুঁকতে দেব না।” রাহুল কারও নাম না করলেও পরিষ্কার হয়ে যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Modi) উদ্দেশেই নিশানা শানিয়েছেন তিনি। তবে রাহুলকে পালটা দিয়েছে গেরুয়া শিবিরও। তাদের দাবি, ম্যাকমোহন লাইনে ওই চিনা গ্রাম কংগ্রেস আমলেই তৈরি।

অরুণাচল প্রদেশের বিজেপি সাংসদ তপির গাওয়ের কথায়, ”আশির দশক থেকে চিন রাস্তা বানাচ্ছে। লংজু থেকে মাজা রোডের রাস্তা বানিয়েছে ওরা। সেই রাজীব গান্ধীর আমল থেকে তাওয়াংয়ের সুমদরং চু উপত্যকা দখল করেছে চিন। তৎকালীন সেনাপ্রধান এই নিয়ে অপারেশনের প্ল্যান করলেও রাজীব গান্ধী লালফৌজকে হটিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনায় সায় দেননি।”

[আরও পড়ুন : নেতাজির জন্মদিনে দেশজুড়ে পালিত হবে ‘পরাক্রম দিবস’, বড় ঘোষণা কেন্দ্রের]

তাঁর দাবি, কংগ্রেস আমলে সরকার এই নিয়ে ভুল নীতি নিয়ে চলেছে। নতুন ওই গ্রামও কংগ্রেস আমলেই তৈরি। গতকালই কেন্দ্রীয় সরকার সতর্ক প্রতিক্রিয়া দিয়েছে ওই গ্রামের বিষয়ে। বিদেশমন্ত্রকের তরফ জানানো হয়, জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়ে সমস্ত ঘটনার উপরই কড়া নজর রাখা হয়। এবং দেশের সার্বভৌমত্ব বজায় রাখার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপও করা হয়।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম গতকালই দাবি করেছিল, অরুণাচলের বিতর্কিত অঞ্চলে গ্রামটি তৈরি করেছে চিন। তাদের তরফে দু’টি ছবিও প্রকাশ করা হয়। যার একটি ২০১৯ সালের ২৬ আগস্ট তোলা। অন্যটি তোলা হয়েছে গত নভেম্বরে। তাদের দাবির পরেই তা নিয়ে প্রতিক্রিয়া দেয় বিদেশমন্ত্রক।

[আরও পড়ুন : কোভিডমুক্ত হওয়ার পথে দেশ? একধাক্কায় অনেকটাই কমল দৈনিক করোনা সংক্রমণ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement