BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ক্যাম্পাসে মহিলাদের স্কার্ফ পরায় নিষেধাজ্ঞা, বিতর্কে মীরাটের বিশ্ববিদ্যালয়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 18, 2018 11:39 am|    Updated: July 18, 2018 11:39 am

Row after Chaudhary Charan Singh University bans head-scarf

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্যাম্পাসে ঢুকে পড়ছেন বহিরাগতরা। অনেকের আবার মাথায় ওড়না কিংবা স্কার্ফ। ফলে কে ছাত্রী আর কে বহিরাগত?  বোঝাও যাচ্ছে না। তাই মহিলাদের স্কার্ফ ব্যবহারে জারি হল নিষেধাজ্ঞা। ক্যাম্পাসের ভিতরে মুখ ঢেকে রাখা যাবে না। এমনই বিতর্কিত নির্দেশ জারি করল উত্তরপ্রদেশের চৌধুরি চরণ সিং বিশ্ববিদ্যালয়। কর্তৃপক্ষের যুক্তি, বহিরাগতদের প্রবেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। তাই মহিলাদের স্কার্ফ বা ওড়না ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

[গ্রেটার নয়ডায় ভেঙে পড়ল নির্মীয়মাণ বহুতল, ৩ জনের দেহ উদ্ধার]

মুসলিম মহিলাদের মধ্যে হিজাব পরার চল আছে। আবার প্রবল গরমের  থেকে বাঁচতে স্কার্ফ বা ওড়না জাতীয় কাপড় দিয়ে মুখ ঢেকে রাস্তায় বেরোন অন্য সম্প্রদায়ের মহিলারাও। চোখ বাদে মুখের বাকি অংশ ঢাকা থাকে। ফলে মহিলাদের চিনতে অসুবিধা হয়। কিন্তু, তা বলে হেডস্কার্ফ ব্যবহারে কি নিষেধাজ্ঞা জারি করা যায়? অন্তত এদেশে তো আগে কখনও এমন নিষেধাজ্ঞা জারি হয়নি। বিতর্ক তুঙ্গে উত্তরপ্রদেশের মীরাটে।

ঘটনাটি ঠিক কী?  যোগীর রাজ্যের প্রথম সারির শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চৌধুরি চরণ সিং বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয়টির ক্যাম্পাস মীরাটে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, নতুন শিক্ষাবর্ষে এখনও ক্লাস শুরু হয়নি। অথচ  ক্যাম্পাসে অনেককেই ঘুরে বেড়াতে দেখা যাচ্ছে। তাঁদের বেশিরভাগই মহিলা এবং বহিরাগত। বেশিরভাগেরই মাথা স্কার্ফ কিংবা ওড়না দিয়ে ঢাকা। পরিচয়পত্র তো দেখাতে পারছেনই না, উলটে মুখ-মাথা ঢাকা থাকায় দেখেও বোঝা যাচ্ছে না, কে ছাত্রী আর কে বহিরাগত?  এই পরিস্থিতিতে বহিরাগতদের প্রবেশ রুখতে ক্যাম্পাসে মহিলাদের স্কার্ফ ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। প্রোক্টোরিয়াল বোর্ডের যুক্তি, ক্যাম্পাসের পরিবেশ ঠিক রাখতে ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের আনাগোনা বন্ধ করা প্রয়োজন। তাই মহিলারা মুখ ঢেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না। চৌধুরি চরণ সিং বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোক্টোরিয়াল বোর্ডের প্রধানের সাফ কথা, ‘আপাতত আমরা সতর্ক করে ছেড়ে দিচ্ছি। তাতেও যদি কাজ না হয়, তাহলে পুলিশে অভিযোগ জানানো হবে।’

স্বাধীন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে মহিলাদের পোশাকবিধি চালুর এমন সিদ্ধান্তে সমালোচনা করেছেন অনেকেই। তাঁদের বক্তব্য,  ছাত্রী বা মহিলারা কী ধরনের পোশাক পরে আসবেন, তা কখনই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ঠিক করে দিতে পারে না। কিন্তু, ঘটনা হল, চৌধুরি চরণ সিং বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্তকে সমর্থনও করছেন বহু ছাত্রী। তাঁদের পালটা দাবি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিবেশ ঠিক রাখতে এই পদক্ষেপ অত্যন্ত জরুরি।

[গোয়ার সৈকতে বসে মদ্যপান? বিপদ ডেকে আনতে পারে কিন্তু!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে