BREAKING NEWS

২৩ চৈত্র  ১৪২৬  সোমবার ৬ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

স্থায়ী কমিশন পাবেন মহিলারা, সুপ্রিম রায়ে সেনাবাহিনীতে দূর হল লিঙ্গবৈষম্য

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: February 17, 2020 11:38 am|    Updated: February 17, 2020 11:45 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় সেনাবাহিনীতে লিঙ্গবৈষম্য দূর করে যুগান্তকারী রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট। সোমবার শীর্ষ আদালত সাফ জানিয়েছে, সেনায় মহিলা অফিসারদের ‘পারমানেন্ট কমিশন’ (পিসি) দিতে হবে।

মহিলাদের ‘পারমানেন্ট কমিশন’ দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে ২০১০ সালে রায় দিয়েছিল দিল্লি হাই কোর্ট। তারপরই সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করে কেন্দ্র সরকার। কেন্দ্রের যুক্তি ছিল, ‘মহিলাদের শারীরিক গঠনে’ সীমাবদ্ধতা ও লড়াইয়ে অত্যন্ত কঠিন পরিবেশের দরুণ সেনায় স্থায়ী পদে নিয়োগ দেওয়া সম্ভব নয়। এছাড়াও কেন্দ্র আরও দাবি করেছিল, মহিলা অফিসারদের কমান্ড পোস্ট বা সরাসরি যুদ্ধক্ষেত্রে নিয়োগ করলে তাঁদের নিরাপত্তার বিশেষ ব্যবস্থা করতে হবে। পাশাপাশি, সীমান্তে মোতায়েন পুরুষ জওয়ানরা মহিলা অফিসারদের আদেশ মানতে মানসিকভাবে প্রস্তুত নয়। 

এদিন, রায় পড়ে শোনানোর সময় সেনায় মহিলাদের স্থায়ী নিয়োগ প্রসঙ্গে ‘লিঙ্গ নিয়ে কেন্দ্রের চিরাচরিত ধারণা’র সমালোচনা করেন শীর্ষ আদালতের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়। তিনি আরও বলেন, ‘নিজেদের কাজ করার জন্য প্রত্যেক সৈনিকের শারীরিক যোগ্যতা থাক উচিত। সেনায় মহিলাদের জায়গা ক্রমে পালটাচ্ছে। কেন্দ্রের উচিত দিল্লি হাই কোর্টের নির্দেশ পালন করা। উল্লেখ্য, ২০১০ সালে ভারতীয় সেনার তিন বাহিনীতেই মহিলাদের ‘পারমানেন্ট কমিশন’ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল দিল্লি হাই কোর্ট। তারপরই এই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। গত বছর স্থলসেনার সিগন্যালস, ইঞ্জিনিয়ারস, আর্মি এভিয়েশন, আর্মি এয়ার ডিফেন্স, আর্মি সার্ভিস কোর-সহ ১০টি শাখায় মহিলাদের স্থায়ী নিয়োগ দেওয়া হয়।     

[আরও পড়ুন: ট্রাম্পের সফরে সন্ত্রাসের ছায়া, ভারতকে রক্তাক্ত করার হুমকি জইশের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement