BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘আইন-শৃঙ্খলার দায়িত্ব আমাদের নয়’, ‘পদ্মাবত’ ইস্যুতে সুপ্রিম কোর্টের তোপ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 19, 2018 3:23 pm|    Updated: January 19, 2018 3:28 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির দেখভালের দায়িত্ব আমাদের  নয়। এটি রাজ্য সরকারের দায়িত্ব।” ‘পদ্মাবতকে দেওয়া সেন্সরের ছাড়পত্র বাতিলের আবেদন খারিজ করে এমনই তোপ দাগল দেশের শীর্ষ আদালত। বনশালির বিতর্কিত ছবি ‘পদ্মাবত’ মুক্তি পেলে বিঘ্নিত হতে পারে বিভিন্ন রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি। তাই ‘পদ্মাবত’কে দেওয়া সেন্সরের ছাড়পত্র বাতিলের দাবি তোলে বেশ কয়েকটি রাজ্য। এই দাবি সম্বলিত একটি আবেদনও জমা পড়ে সুপ্রিমকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে। শুক্রবার  সুপ্রিমকোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র-সহ বিচারপতি এ কে খানউইলকর, ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের ডিভিশন বেঞ্চ সেই আবেদন খারিজ করে দিল। সাফ জানিয়ে দেওয়া হল ‘পদ্মাবত’-এর মুক্তিতে যদি আইন-শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হয়, তাহলে তার দায়ভার সংশ্লিষ্ট রাজ্য প্রশাসনের, সুপ্রিমকোর্টের নয়।

 [এবার সিনেমার পর্দায় উঠে এল মালালার সংগ্রামের কাহিনি]

বৃহস্পতিবারই সুপ্রিমকোর্টের তরফে জানানো হয়েছিল, সেন্সর ‘পদ্মাবত’কে ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছে। তাই এখন ছবিটির মুক্তি রদ করা যাবে না। তারপরই ছাড়পত্র বাতিলের আবেদন জমা পড়ে সুপ্রিমকোর্টে। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেই এ হেন মন্তব্য করছে ডিভিশন বেঞ্চ। বিভিন্ন রাজ্যের তরফে ‘পদ্মাবত’-এর মুক্তি স্থগিত রাখার দাবিতে আসা আবেদন নিয়ন্ত্রণে তৎপরতাও দেখানো হয়েছে। ২৫ তারিখ দেশজুড়ে ছবিটির মুক্তিতে যাতে কোনওরকম বাধা না আসে তাই নিশ্চিত করেছিল সুপ্রিমকোর্ট। তারপরও ছবির মুক্তিতে নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে গুজরাট-রাজস্থানে। হরিয়ানা ও মধ্যপ্রদেশ সরকারের তরফে সরকারিভাবে কোনও নিষেধাজ্ঞা জারি হয়নি। তবে দুই রাজ্যের তরফেই প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তির অনুমতি দেওয়া হয়নি।

এদিকে পাটনার একটি প্রেক্ষাগৃহে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে কর্ণি সেনার বিরুদ্ধে। অভিযোগ, প্রেক্ষাগৃহের স্ক্রিনকে পাথর ছুঁড়ে ভেঙে দিয়েছে বিক্ষুব্ধরা। মুজাফ্ফরপুরের ওই প্রেক্ষাগৃহটি ছাড়া পাটনার অন্য কোথাও মুক্তি পাচ্ছে না ‘পদ্মাবত’। এমন খবর রটেছিল। এরপরই হামলা চালায় কর্ণি সেনা। প্রেক্ষাগৃহে দলে দলে জড়ো হয়ে ‘পদ্মাবত’-এর মুক্তি রুখে দিক জনসাধারণ। মঙ্গলবার এই মন্তব্যই করেছিলেন রাজপুত কর্ণি সেনা প্রধান লোকেন্দ্র সিং কালভি। তবে ‘পদ্মাবত’-এর মুক্তিতে সুপ্রিমকোর্টের তরফে সবুজ সংকেত আসায় ফের বৈঠকে বসতে চলেছেন তিনি। এমনটাই জানা গেছে।

[হিসেবের পাশেই রবি ঠাকুরের পংক্তি, দেখেছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের খেরোর খাতা?]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement