২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অশান্ত কাশ্মীরে পা রাখলেন মোদি, জোরদার নিরাপত্তা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 19, 2018 11:18 am|    Updated: May 19, 2018 11:19 am

Security has been beefed up in Jammu and Kashmir ahead of Modi's visit

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাশ্মীর সফরকে ঘিরে নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে ফেলা হল সম্পূর্ণ উপত্যকা। শনিবার অশান্ত কাশ্মীরে পা রাখেন প্রধানমন্ত্রী। এদিন শের-ই-কাশ্মীর ইউনিভার্সিটি অফ এগ্রিকালচার সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজির একটি অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন তিনি। একই সঙ্গে পাকিস্তানকে কড়া জবাব দিয়ে একটি জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন মোদি। এই প্রকল্পের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরেই সওয়াল করে আসছে পাকিস্তান। তবে তাতে মোটেও কান দেননি প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী মোদির সফরকালে যাতে কোনও রকমের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি না হয়, তাই সজাগ নিরাপত্তারক্ষীরা।

[প্রিন্স হ্যারি ও মেগানের বিয়ের জন্য বিশেষ উপহার কিনলেন মুম্বইয়ের ডাব্বাওয়ালারা]

নিরাপত্তার খাতিরে ইতিমধ্যেই বন্ধ করে দেওয়া একাধিক রাস্তা। বিশেষ বিশেষ রাস্তায় চলছে নাকাতল্লাশি। সবদিকে নজর রাখছেন কাশ্মীর পুলিশ ও সিআরপিএফ জওয়ানরা। প্রধানমন্ত্রীর সফরের কারণে কয়েকদিন ধরেই কাশ্মীরের বিভিন্নস্থানে তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছিল নিরাপত্তারক্ষী বাহিনী। কোনও জঙ্গি আত্মগোপন করে রয়েছে কিনা তারই খোঁজে চলছিল তল্লাশি। জানা গিয়েছে, কাশ্মীরে পৌঁছে প্রথমেই বৌদ্ধ সন্ন্যাসী কুশোক বাকুলা রিনপোচের ১৯তম জন্মদিনের অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। এরপরে তাঁর যাওয়ার কথা রয়েছে ৩৩০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন কিষণগঙ্গা জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের উদ্বোধনে। এরপরে তিনি যোগ দেবেন শের-ই-কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয়ের কনভোকেশনে। সফরকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রয়েছেন, কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রী নীতিন গড়করি ও জম্মু-কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি।

[আসছে ওয়াশিং মেশিন, নয়া রূপে আত্মপ্রকাশ করবে মুম্বইয়ের শতাব্দী প্রাচীন ধোবিঘাট]

রমজানের শুভ মুহূর্তে গতকালই সীমান্ত উত্তপ্ত করে তুলেছিল পাক সেনা। জম্মু-কাশ্মীরের আর্নিয়া সেক্টরে পাকিস্তানের গুলিতে শহিদ হয়েছিলেন এক ভারতীয় জওয়ান। ওপার থেকে আসা গুলিতে গুরুতর আহত হয়েছিলেন আরও এক জওয়ান ও দুই নাগরিক। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে বান্দিপোরা সেক্টরে টহলদারি চালাচ্ছিলেন ১৩ রাষ্ট্রীয় রাইফেলসের জওয়ানরা। তখনই তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে জঙ্গিরা। এরপরেই পালটা উত্তর দেয় ভারতীয় জওয়ানরা। এছাড়া, গতকাল আরএস পুরা সেক্টরেও সংঘর্ঘবিরতি লঙ্ঘন করে গুলি চালায় পাক রেঞ্জাররা। সেখানেই গুরুতর জখম হন দুই নাগরিক।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে