১৩ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২৭ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সম্প্রতি নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হয়েছে সংসদে। আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আসা হিন্দু, শিখ, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী মানুষদের ভারতে বসবাস করার অধিকার সুরক্ষিত করতেই এই পদক্ষেপ বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। যদিও বিষয়টিকে কেন্দ্র করে প্রবল উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে অসম-সহ উত্তর-পূর্বের বিভিন্ন অঞ্চল। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধিতায় বনধ ডাকা থেকে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভে সামিল হয়েছেন অসমের ভূমিপুত্ররা। কোনওভাবেই অসমকে তাঁরা বাংলাদেশের চারণভূমি বানাতে দেবেন না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের অভিযোগে সাতজন বাংলাদেশি নাগরিককে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের পালঘরে। ধৃতদের জেরা করে তাদের সঙ্গে আরও কারা আছে তার সন্ধান করছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: অগ্নিগর্ভ অসম, CAB-এর প্রতিবাদে বিজেপি ছাড়লেন অভিনেতা যতীন বোরা]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বাংলাদেশের বহু নাগরিক কাজের সূত্রে ভারতে প্রবেশ করে আর ফিরে যায় না বলে অভিযোগ। সেজন্য মাঝে মধ্যেই মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালায় মহারাষ্ট্র পুলিশ। কয়েকদিন আগে তাদের কাছে খবর পৌঁছয়, পালঘর এলাকায় কিছু বাংলাদেশি নাগরিক অবৈধভাবে বসবাস করছে। কোন কাগজপত্র তাদের কাছে নেই। এরপরই পুলিশের একটি দল তাদের সন্ধানে বিভিন্ন এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছিল। বৃহস্পতিবার সেই অভিযানের সময় সাতজন বাংলাদেশিকে আটক করা হয়। পরে জেরা করার সময় কথাবার্তায় অসংগতি পেয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর, বাংলাদেশের সীমান্ত টপকে অবৈধভাবে ভারতে ঢুকে বিভিন্ন রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ে বহু মানুষ। অনেক সময়ই তাদের আর কোনও সন্ধান পাওয়া যায় না। তবে নির্দিষ্টভাবে কোনও অভিযোগ থাকলে মাঝে মধ্যেই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালানো হয়। কয়েকদিন ধরে সেই কাজই চলছিল। তখনই ওই সাতজন বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতদের জেরা করে কীভাবে তারা ভারতে এলো তা জানার চেষ্টা চলছে।

[আরও পড়ুন: “নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনি মানছি না”, ঐক্যবদ্ধ পাঁচ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং