BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘সরকারি নির্দেশ মানলেই দ্রুত হারানো যাবে করোনাকে’, বলছেন দিল্লির শাহী ইমাম

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 23, 2020 12:44 pm|    Updated: April 23, 2020 6:49 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী ২৪ এপ্রিল থেকে শুরু হচ্ছে পবিত্র রমজান মাস। মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষরা বছরের মধ্যে সবথেকে পবিত্র মাস একেই মনে করে। সারাদিনের উপবাসের পর সন্ধেয় মসজিদে নমাজ পাঠ ও তারপর সবাই মিলে ইফতার পার্টি যোগ দেওয়া। এই একমাস ধরে যেন একটা মিলন উৎসব চলে। কিন্তু, এবার করোনা ভাইরাসের জেরে বদলে গিয়েছে পরিস্থিতি। সংক্রমণ রোখার চেষ্টায় দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। এই অবস্থায় ফের সরকারের নির্দেশ মেনে চলারই বার্তা দিলেন দিল্লির জামা মসজিদের শাহী ইমাম সৈয়দ আহমেদ বুখারি।

বৃহস্পতিবার এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘যদি আমরা সরকারি নির্দেশ মেনে চলি তাহলে দ্রুত কোভিড-১৯ (COVID-19) কে সমূলে ধ্বংস করতে পারব। রমজানের পবিত্র মাস শুরু হতে চলেছে। এই সময়ে আমরা বাড়িতে থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই প্রার্থনা ও সমস্ত কাজ করব। এই নিয়ম মেনে চললে আমরা সবাইকে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচাতে পারব।’

[আরও পড়ুন: প্রাণায়াম হারাতে পারে করোনাকে, নিয়মিত অভ্যাসের পরামর্শ কোভিড-১৯ যুদ্ধ জয়ীর ]

এর আগে গত ২৭ মার্চ একটি সাক্ষাৎকারে সৈয়দ আহমেদ বুখারি বলেন, ‘জনসমাগম রুখতে চার-পাঁচদিন আগেই জামা মসজিদের তিনটি গেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। এমনকী তিন-চারজনের বেশি যাতে গেটের বাইরে জমায়েত করতে না পারে তার দিকেও খেয়াল রাখা হচ্ছিল। কিন্তু, তারপরও অনেকে ফোন করে নমাজের বিষয়ে জানতে চাইছেন। তাঁদের আমি বলেছি বাড়িতে থেকেই নমাজ পড়তে। সবাইকে আমি অনুরোধ করছি দল বেঁধে মসজিদে না এসে বাড়িতেই থাকুন। আর সেখানেই জুম্মার নমাজও পড়ুন। এছাড়া আর কোনও উপায় নেই। রমজানের আর বেশি দেরি নেই। তা সত্ত্বেও দেশের রাজধানীতে জারি হওয়া নিষেধাজ্ঞার কথা মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আশা করব সবাই বর্তমান সমস্যার কথা মাথায় রেখে কাজ করবেন।’ তাঁর পাশাপাশি গত সপ্তাহে এই একই অনুরোধ করেছিলেন কেন্দ্রীয় সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী মুখতার আব্বাস নকভি।

[আরও পড়ুন: মুসলিম ডেলিভারি বয়ের থেকে খাদ্যসামগ্রী নিতে অস্বীকার, গ্রেপ্তার গৃহস্থ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement