৫ আষাঢ়  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৫ আষাঢ়  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বুথফেরত সমীক্ষার পর সোমবার বাজার খুলতেই লাফিয়ে বেড়েছিল সেনসেক্স এবং নিফটি। মঙ্গলবার ফের নতুন সর্বকালীন উচ্চতার নজির গড়লেও তা অবশ্য দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। উলটে শেয়ার বাজার কিছুটা নিম্নমুখী। মনে করা হচ্ছে, লাভের অঙ্ক ঘরে তুলে একশ্রেণির সাবধানী লগ্নিকারী শেয়ার বিক্রি করার প্রবণতা দেখানোয় বাজারদর ফের পড়তির দিকে গিয়েছে। ভোটের ফল সমীক্ষা অনুযায়ী বলে, দর ফের বাড়বে বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের।

[অধিবেশনে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান বিজেপি কাউন্সিলরের, উত্তপ্ত কলকাতা পুরসভা]

রবিবার শেষ দফার ভোটের পর বুথফেরত সমীক্ষায় ইঙ্গিত মিলেছিল, কেন্দ্রে ফের সরকার গড়তে চলেছে এনডিএ। স্থিতিশীল সরকারের আশায় সোমবার বাজার খুলতেই শুরু হয় ঊর্ধ্বগতি। দিনের শেষে সেনসেক্স প্রায় ১৫০০ এবং নিফটি প্রায় ৫০০ পয়েন্ট উপরে উঠে বন্ধ হয় বাজার। মঙ্গলবার সকালে বাজার খোলার সময় প্রায় ৯৬ পয়েন্ট উঠে খোলে সেনসেক্স। নিফটিও ৩৫ পয়েন্ট উপরে ছিল খোলার সময়। তার পর আরও উপরে উঠে সর্বকালীন রেকর্ডও পার করে দেয় দুই সূচকই। সেনসেক্স পৌঁছে গিয়েছিল ৩৯৫৭১.৭৩ এবং নিফটি ছুঁয়েছিল ১১৮৮৩.৭৩ পয়েন্ট। মূলত রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ, এইচডিএফসি এবং এইচডিএফসি ব্যাংকের সৌজন্যে। কিন্তু বেলা বাড়তেই ধীরে ধীরে সূচক নামতে শুরু করে। তিনটে নাগাদ সেনসেক্স ৪২০ পয়েন্ট এবং নিফটি ১৩৩ পয়েন্ট পড়ে যায়। ইনফোসিস, স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া, আইসিআইসিআই ব্যাংক, টাটা মোটরস ও ইন্ডাসইন্ড ব্যাংকের দর কমে যায়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বৃহস্পতিবার ভোটের ফল প্রকাশের দিন পর্যন্ত বাজারে সামান্য অস্থিরতা থাকবেই।

এদিন সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে টাটা মোটরস। তাদের শেয়ার দর প্রায় ৬.৬৫ শতাংশ পড়ে যায়। কারণ, মার্চ ত্রৈমাসিকে তাদের নিট মুনাফা গত বছরের তুলনায় প্রায় অর্ধেক হয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি, ভারত পেট্রোলিয়াম, জি এন্টারটেনমেন্ট, ইন্ডিয়ান অয়েল, আদানি পোর্টস, গেইল ইন্ডিয়া, ইয়েস ব্যাঙ্ক, টাটা স্টিলের মতো সংস্থার দর কমেছে। লাভবান হয়েছে ভারতী ইনফ্রাটেল, ডঃ রেড্ডি’স ল্যাবস, ব্রিটানিয়া ইন্ডাস্ট্রিজ, রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ, টাইটানের মতো সংস্থা।

কিন্তু ভোট গণনার পর? আবার কি বাজারে তেজি ভাব আসবে? বিশেষজ্ঞদের মত, ভোটের ফলের উপর বাজারের গতি কিছুটা নির্ভর করলেও নতুন করে সোমবারের মতো বিরাট ঊর্ধ্বগতির আশা কম। তবে সমীক্ষা কাছাকাছি গেলে কিছুটা উপরের দিকেই থাকবে বাজার, মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। আবার সমীক্ষার ফল না মিললে বাজারের ব্যাপক পতন হতে পারে বলেও আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।

[১২ বছর বয়সেই মাধ্যমিকে উত্তীর্ণ, নজির গড়ল আমতার সইফা খাতুন]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং