BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

আবদুল্লাহকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে লালচকে তেরঙ্গা ওড়াল শিব সেনা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 6, 2017 8:21 am|    Updated: September 20, 2019 6:52 pm

Shiv Sena unfurled the national flag at Lal Chowk in Srinagar

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীর ইস্যুতে এবার সম্মুখ সমরে শিব সেনা এবং কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লাহ। দিনকয়েক আগে আবদুল্লা কেন্দ্রকে তোপ দেগে বলেছিলেন, পাক অধিকৃত কাশ্মীর (পিওকে) তো দূর অস্ত, শ্রীনগরের লালচকে তেরঙ্গা ওড়ানোর ক্ষমতাও নেই সরকারের। আর এবার সেই লালচকে ভারতের পতাকা তুলে তাঁকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ জানাল শিব সেনা।

[অশ্লীল ছবি দেখিয়ে ছাত্রীদের আপত্তিকর জায়গায় হাত, গ্রেপ্তার শিক্ষক]

বুধবার শ্রীনগরের অন্যতম ব্যস্ততম এলাকা লালচকে জমায়েত হন শিব সেনার সদস্যরা। তারপরই সেখানে জাতীয় পতাকা তোলে শিব সেনার জম্মু-কাশ্মীর ইউনিটের সদস্যরা। শিব সেনার জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্য সম্পাদক ডিম্পি কোহলির বলেন, ‘এখানে পতাকা তুলেছি। সেই সময়ও বেশি দূরে নেই যখন আমরা পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতের পতাকা তুলব।’ বোঝা যাচ্ছে কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে জবাব দিতেই এই কাজ শিব সেনার। এর আগে গত সোমবার প্রয়াত কংগ্রেস নেতা ও সাংসদ জি এল ডোগরার ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তাঁকে শ্রদ্ধা জানাতে এসে ন্যাশনাল কনফারেন্সের নেতা ফারুক আবদুল্লাহ বলেন, “কেন্দ্র ও বিজেপি পিওকে-তে ভারতের পতাকা তোলার কথা বলছে। আমি বলছি, আগে শ্রীনগরের লালচকে তেরঙ্গা উড়িয়ে দেখাক তারা। সেটাই তাদের পক্ষে অসম্ভব, অথচ পিওকে নিয়ে মন্তব্য রাখছে।” এমন বিস্ফোরক মন্তব্যে ফের বিতর্ক দানা বাঁধে।

[এবার কার্টুন দেখানোর নাম করে শিশুকন্যাকে যৌন নির্যাতন]

এ ধরনের মন্তব্যে ভারতীয়দের আবেগে আঘাত লাগছে না? এমন প্রশ্নকে তুড়ি মেরে উড়িয়ে তাঁর পালটা প্রশ্ন, “ভারতীয় আবেগ বলতে কী বোঝাতে চাইছেন? আমি কি ভারতীয় নই? কার আবেগের কথা বলা হচ্ছে? সীমান্তের বাসিন্দাদের কোন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে দিন কাটাতে হয় সরকার জানে! যখন গুলি বর্ষণ শুরু হয় তখন এখানকার ছবিটা কেমন হয় কোনও ধারণা আছে?” নোট বাতিলের পর অনেকটাই শান্ত উপত্যকা। কেন্দ্রের এমন দাবিকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। এর আগেও অবশ্য কাশ্মীর নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন তিনি। বলেছিলেন, “পাক অধিকৃত কাশ্মীর আসলে প্রতিবেশী রাষ্ট্রেরই অংশ। দুই দেশের মধ্যে যতই লড়াই হোক, তা পাকিস্তানেরই থাকবে।” এখানেই শেষ নয়, ভারত-চিন সম্পর্ক প্রসঙ্গে কেন্দ্রকে একহাত নিয়ে ফারুক আবদুল্লাহ বলেছিলেন, চিনকে চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো শক্তি বা ক্ষমতা কোনওটাই নেই ভারতের। নিজের বয়ানে ভারতের বিদেশনীতিকে কার্যত বিফল বলে দাবি করেছিলেন তিনি। তাঁর মতে চিনের সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক থাকলে আজ কমিউনিস্ট দেশটি পাকিস্তানকে সমর্থন জোগাত না।

[কুষ্ঠ রোগী বলে মিলছে না আধার, পেনশন না পেয়ে বিপাকে বৃদ্ধা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে