৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৪ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শিবলিঙ্গ ভাঙচুরের ঘটনায় উত্তাল রাঁচি, রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ জনতার

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 5, 2020 9:34 pm|    Updated: November 5, 2020 9:35 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিবলিঙ্গ ভাঙচুরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রবল উত্তেজনা ছড়াল ঝাড়খণ্ডের রাজধানী রাঁচিতে। বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে রাঁচি (Jharkhand)’র উপর বাজার এলাকার রাংরেজ গলিতে। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করলেও এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সকালে রাঁচির উপর বাজার এলাকার রাংরেজ গলি (Upper Bazaar) -তে অবস্থিত একটি মন্দিরে শিবলিঙ্গ (Shivalinga) ভাঙা অবস্থায় পড়তে থাকতে দেখেন কিছু মানুষ। কিছুক্ষণ পরে এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই স্থানীয় ব্যবসায়ীরা নিজেদের দোকান বন্ধ করে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। পরে তাতে যোগ দেন ওই এলাকার বাসিন্দারাও। রাস্তা অবরোধ করে শিবলিঙ্গ ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার করে কড়া শাস্তি দেওয়ার দাবি জানাতে থাকেন। খবর পেয়ে পুলিশ এসে বহুকষ্টে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলেও এখনও সেখানে উত্তেজনা রয়েছে। ঘটনাস্থলে গিয়ে বিকোক্ষকারীদের সঙ্গে কথা বলেছেন রাঁচির সিনিয়র পুলিশ সুপার সুরেন্দ্র ঝা-সহ অন্য উচ্চপদস্থ প্রশাসনিক আধিকারিকরাও।

[আরও পড়ুন: অন্ধ্রপ্রদেশে স্কুল চালু হতেই বড় ধাক্কা, মাত্র তিনদিনে করোনা আক্রান্ত আড়াই শো-র বেশি পড়ুয়া ]

পুলিশ সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার সকালে রাংরেজ গলির একটি মন্দিরে শিবলিঙ্গ ভাঙা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। এই খবর ছড়িয়ে পড়তে সেখানে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় মানুষ ও ব্যবসায়ীরা। পরে স্বয়ং পুলিশ কমিশনার ও অন্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছেন। তবে এখনও সেখানে প্রবল উত্তেজনা রয়েছে বলে প্রচুর পুলিশকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে। মন্দির সংলগ্ন এলাকায় থাকা সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অপরাধীদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। খুব তাড়াতাড়ি তাদের গ্রেপ্তার করা হবে।

এদিকে এই ঘটনার পরে ঝাড়খণ্ডের হেমন্ত সোরেন সরকারের বিরুদ্ধে তোগ দেগেছে বিরোধীরা। বিজেপি ও ঝাড়খণ্ড পার্টির তরফে শিবলিঙ্গ ভাঙচুরের ঘটনার তীব্র নিন্দা করে অভিযুক্তদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করার দাবি জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: মারাত্মক ক্ষতি করে শরীরের, ডিসইনফেকশন টানেল ব্যবহার বন্ধের নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement