BREAKING NEWS

১০ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ২৪ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

অ্যালকোহল যুক্ত স্যানিটাইজার ব্যবহারে আপত্তি, বন্ধই থাকছে মথুরা-বৃন্দাবনের একাধিক মন্দির

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 8, 2020 12:28 pm|    Updated: June 8, 2020 12:28 pm

Shun Use of Alcohol-based Sanitisers, most temple in Mathura-Vrindavan remain shut

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সরকারের নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে আজ থেকে খুলছে দেশের সকল ধর্মীয় স্থান। কিন্তু মথুরা-বৃন্দাবনের একাধিক মন্দির বন্ধ রাখতে চায় মন্দির কর্তৃপক্ষ। স্বচ্ছতা, সামাজিক দূরত্ব মেনে চললেও অ্যালকোহল যুক্ত স্যানিটাইজার ব্যবহারে নিমরাজি তাঁরা। অগত্যা মন্দির বন্ধ রাখার পক্ষেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এই কৃষ্ণভূমে।

স্বাস্থবিধি বজায় রাখতে প্রতিটি ধর্মস্থানে আগত ভক্তদের স্বচ্ছতার বিষয়ে খেয়াল রাখার কথা বলা হয় কেন্দ্রের তরফ থেকে। গায়ে গায়ে দাঁড়িয়ে ভিড় করা যাবে না মন্দির চত্বরে। কেন্দ্রের এই সব শর্ত মানতে রাজি উত্তরপ্রদেশের বৃন্দাবনবাসী। কিন্তু সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী অন্যান্য সতর্কতার সঙ্গে সব ধর্মীয় স্থানেই হ্যান্ড স্যানিটাইজার (Hand sanitiser) রাখতে হবে৷ এতেই মহা ফাপড়ে পড়েছে মথুরা-বৃন্দাবনের একাধিক মন্দির কর্তৃপক্ষ। মন্দিরে অ্যালকোহল যুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারে আপত্তি রয়েছে মন্দির কর্তৃপক্ষের৷ তাই মন্দির বন্ধই রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাঁরা৷

[আরও পড়ুন:ফের একদিনে রেকর্ড বৃদ্ধি, দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পেরল আড়াই লক্ষ]

‘আনলক-১’-এ নিয়মের শিথিলতা মেনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সোমবার থেকে ধর্মীয় স্থানগুলি খুলতে শুরু করলেও মথুরা, বৃন্দাবনে দেখা গিয়েছে অন্য ছবি৷ ইসকন, বাঁকে বিহারি, শ্রী রঙ্গনাথজি-র মতো মন্দিরগুলিতে দেখা দিয়েছে ভক্তদের হতাশার ছবি৷ গোবর্ধন মুকুট মুখঅরবিন্দ মন্দিরের এক পুরোহিত জানান, মন্দিরের ভিতরে অ্যালকোহল যুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারে আপত্তি রয়েছে তাঁদের৷ সেই কারণেই মন্দির খোলা হয়নি৷ তবে ভক্তদের কথা ভেবে তাঁরা মন্দিরের বাইরে এলইডি স্ক্রিন লাগিয়ে ভক্তদের দেবতার দর্শনের ব্যবস্থা করেছেন তারা৷

[আরও পড়ুন:কঠোর লকডাউনেই মিলল সাফল্য, মাত্র ৩ মাসে পুরোপুরি করোনামুক্ত নিউজিল্যান্ড]

বৃন্দাবনের ইসকন মন্দিরের মুখপাত্র সৌরভ দাস অবশ্য জানিয়েছেন, “সব কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার পরই আগামী ১৫ জুনের পর মন্দির খোলা হবে৷” তবে প্রশাসনের তরফে ভিড় নিয়ন্ত্রণের আশ্বাস পাওয়ার পর শ্রীকৃষ্ণের জন্মস্থান-সহ বেশ কয়েকটি মন্দির ফের খুলেছে৷ পুলিশ সুপার এ কে মীনা জানিয়েছেন যে, ভিড় নিয়ন্ত্রণের জন্য বিশদ পরিকল্পনা তৈরি করা হয়েছে৷ তাতে মন্দিরগুলিতে সামাজিক দূরত্বও বজায় রাখা যাবে বলে আশ্বস্ত করেছেন পুলিশ সুপার৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে