১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মেজাজ হারিয়ে মহিলার ওড়নায় টান, সিদ্দারামাইয়ার আচরণে অস্বস্তিতে কংগ্রেস

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: January 28, 2019 6:42 pm|    Updated: January 28, 2019 6:54 pm

Siddaramaiah assaults woman

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপি-সংঘের বিরুদ্ধে মহিলাদের অসম্মান করার অভিযোগ তোলেন রাহুল গান্ধী। কিন্তু কর্ণাটকের বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতার বিতর্কিত ভিডিও সামনে আসায় অস্বস্তিতে শীর্ষ নেতৃত্ব। প্রকাশ্যে জনসভায় মেজাজ হারিয়ে এক মহিলার ওড়না টানলেন কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া। তাঁর এই আচরণে রীতিমতো নিন্দায় সরব হয়েছে রাজনৈতিক মহল। পাশে নেই, সাফ জানাল শীর্ষ নেতারাও।

[‘বাড়াবাড়ি করছে কংগ্রেস’, পদত্যাগের হুমকি কুমারস্বামীর]

কর্ণাটকে জোট নিয়ে এমনিতেই সংকটে কংগ্রেস। সোমবারই ইস্তফা দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী। এবার সিদ্দারামাইয়ায়ের আচরণে আরও অস্বস্তিতে কংগ্রেস। লোকসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে কংগ্রেস দলীয় নেতাকর্মীদের জন্য একটি প্রশ্নোত্তর পর্বের আয়োজন করেছিল। সাধারণ কর্মীদের প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছিলেন সিদ্দা। এক মহিলা কর্মী তাঁকে অস্বস্তিকর প্রশ্ন করেন। জানা গিয়েছে নিজের ছেলেকে নিয়ে প্রশ্ন শুনে মেজাজ হারান তিনি। তারপরই ওই মহিলার উপর খেপে যান তিনি। ওই মহিলার ওড়না টেনে তাঁকে বসিয়ে দেন কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। এমনকী, ওই মহিলা ফের উঠে দাঁড়াতে চাইলে তাঁকে আবারও বসিয়ে দেওয়া হয়।

[‘হিন্দু নারীদের ছুঁলে কেটে ফেলা হবে হাত’, বিতর্কিত মন্তব্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর]

কংগ্রেস নেতার এই আচরণে রীতিমতো ক্ষুব্ধ রাজনৈতিক মহল। বিজেপি কড়া ভাষায় নিন্দা করেছে। এদিকে কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্বও পাশে নেই সিদ্দারামাইয়ার। বিজেপির তরফে প্রকাশ জাভড়েকর অভিযোগ করেছেন, এই আচরণেই বোঝা যায়  মেয়েদের কতটা অসম্মান করে কংগ্রেস। এবার রাহুল গান্ধীকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে তিনি সিদ্দারামাইয়াকে কী শাস্তি দেবেন। স্থানীয় কংগ্রেস নেতারা অবশ্য দলের বর্ষীয়ান নেতার আচরণের সাফাই গাইছেন। কর্ণাটকের কংগ্রেস সভাপতি দীনেশ গুণ্ডুরাও-এর দাবি, ওই মহিলা আপত্তিকর প্রশ্ন করছিলেন, বারবার থামতে বললেও থামেননি। তাই তাঁর হাত থেকে মাইকটা কেড়ে নিতে চেয়েছিলেন সিদ্দারামাইয়া। মাইকটা কাড়তে গিয়ে মহিলার ওড়না সিদ্দারামাইয়ার হাতে চলে আসে। তিনি ইচ্ছাকৃতভাবে একাজ করেনি। কংগ্রেস শীর্ষ নেতৃত্ব অবশ্য সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁরা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর এই আচরণকে সমর্থন করেন না।

তবে, সিদ্দারামাইয়াকে শেষ পর্যন্ত স্বস্তি দিয়েছেন আক্রান্ত মহিলায়। তিনি বলছেন, “আমার ওনার বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ নেই। উনি আমাদের সেরা মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। আমি টেবিলে চাপড় দেওয়ায় রেগে গিয়েছিলেন। এই ধরণের আচরণ করা উচিত হয়নি আমার।”

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে