১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মোবাইলে আধার কেওয়াইসি নিয়ে ফের বড় ঘোষণা কেন্দ্রের

Published by: Tanujit Das |    Posted: October 18, 2018 6:09 pm|    Updated: October 18, 2018 6:09 pm

SIM cards issued through Aadhaar will not be disconnected

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সিম কার্ড ও ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার কার্ডের লিংক করা বাধ্যতামূলক নয়৷ ঐতিহাসিক রায়ে এমনই নির্দেশ দিয়েছিল মহামান্য সুপ্রিম কোর্ট৷ কিন্তু এই রায়ই চিন্তায় ফেলে দিয়েছিল সেই সমস্ত উপভোক্তাদের, যাঁরা ইতিমধ্যে আধার কেওয়াইসি জমা দিয়েছেন বা তথ্য যাচাই করিয়েছেন৷ সিম কার্ড বন্ধ হয়ে যাওয়ার আতঙ্কে ভুগছিলেন তাঁরা৷ উপভোক্তাদের সেই আশঙ্কা কাটানোর চেষ্টা করল আধার কর্তৃপক্ষ ও ডিপার্টমেন্ট অফ টেলিকম৷ যৌথ বিবৃতিতে উভয় কর্তৃপক্ষই এমন সম্ভাবনা উড়িয়ে দিলেন৷

[সবরীমালায় মহিলা প্রবেশের প্রতিবাদ, কেরল জুড়ে ১২ ঘণ্টা বনধ ভক্তদের]

তাঁদের স্পষ্ট বক্তব্য, ”রায়ে মহামান্য সুপ্রিম কোর্ট কোথাও উল্লেখ করেনি যে, আধার কেওয়াইসি জমা দেওয়া মোবাইল নম্বরগুলি বন্ধ করে দিতে হবে বা এই যাচাই পদ্ধতির কোনও বৈধতা নেই৷ ফলে মোবাইল নম্বর বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা কেবলই একটা গুজব এবং এতে সাধারণ মানুষের ভয় পাওয়ার কোনও কারণ নেই৷” এমনকী, বর্তমানে আধার কেওয়াইসি জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক নয় বলেও জানিয়েছেন তাঁরা৷ তবে এক্ষেত্রে আরও কিছু বিষয়ও উল্লেখ করেছে তাঁরা৷ তাঁদের বক্তব্য, যদি কোনও উপভোক্তা নিজ ইচ্ছায় এখনও কেওয়াইসি জমা দিতে চান তিনি দিতেই পারেন৷

[ইস্তফা দিলেন যৌন হেনস্তায় অভিযুক্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এম জে আকবর]

গত মাসেই আধার নিয়ে ঐতিহাসিক রায় দেয় সুপ্রিম কোর্ট। আধার আইন সাংবিধানিক ভাবে বৈধ ঘোষণা করে সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। গত বছর লোকসভায় মানি বিল হিসেবে আধার আইন পাশ করিয়েছিল মোদি সরকার। সেই বিলের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল বিরোধীরা। কিন্তু সেই অভিযোগ খারিজ করে সর্বোচ্চ আদালত জানিয়ে দেয় আধার আইন বৈধ। অর্থাৎ, আধার কার্ড বাতিল করা যাবে না। সর্বোচ্চ আদালতের পর্যবেক্ষণ আধার প্রান্তিক মানুষের অধিকার রক্ষায় গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সার্বিকভাবে আইনটি বৈধ বলে ঘোষিত হলেও দুটি ধারায় আপত্তি ছিল প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চের। সেই দুটি ধারা বাতিল করা হয়। সর্বোচ্চ আদালত জানিয়ে দেয়, কোনও বেসরকারি সংস্থাকে আধার কার্ডের তথ্য দেওয়া যাবে না। এর ফলে মোবাইল নম্বর এবং ব্যাংকের সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণ আর বাধ্যতামূলক রইল না। এমনকি ইউজিসি, নিটের মতো সরকারি সংস্থাগুলিও আধার কার্ডের তথ্য ব্যবহার করতে পারবে না। কেন্দ্রের কোনও জনকল্যাণমুখী প্রকল্পের জন্যও আধার কার্ড সংযোগের প্রয়োজন হবে না বলে প্রাথমিকভাবে জানানো হয়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে