BREAKING NEWS

১০  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সন্দেশখালির ঘটনায় তৎপর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক, অমিত শাহকে রিপোর্ট দিলেন মুকুল রায়

Published by: Tanujit Das |    Posted: June 9, 2019 10:10 am|    Updated: June 10, 2019 12:04 pm

State BJP gave the report of Sandeshkahli violence to Amit Shah

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্দেশখালির ন্যাজাটের রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনায় তৎপর অমিত শাহ৷ সূত্রের খবর, ঘটনার খবর কানে যেতেই রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট চেয়ে পাঠান বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি৷ অমিত শাহের কাছে ইতিমধ্যে সংঘর্ষের বিবরণ পেশ করেছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায়৷ তাঁর অভিযোগ, গোটা রাজ্যে হিংসা ছড়াচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সেকারণেই বিজেপি কর্মীদের মৃত্যু হয়েছে৷

[ আরও পড়ুন: সিঙ্গুর আন্দোলন ভুল ছিল, দাবি মমতার সেসময়ের ‘সহযোদ্ধা’ মুকুল রায়ের]

এই ঘটনার পর থেকেই অভিযোগ পালটা অভিযোগের ঝড় উঠেছে তৃণমূল-বিজেপির মধ্যে৷ বিজেপি কর্মীদের পরিকল্পনা মাফিক খুন করা হয়েছে বলে দাবি গেরুয়া শিবিরের৷ এই ঘটনার বিরোধিতা করে বৃহত্তর আন্দোলনে যাওয়ার পাশাপাশি দলের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদের কাছে ঘটনাস্থলে যাওয়ার অনুরোধ করেছেন রাজ্য বিজেপি নেতারা৷ রবিবার সন্দেশখালি যাচ্ছে রাজ্য বিজেপির একটি প্রতিনিধি দলও৷ বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু দাবি করেছেন, সংঘর্ষে তাঁদের দলের পাঁচ কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। যাঁদের মধ্যে সুজিত মণ্ডল, তপন মণ্ডল ও সুকান্ত মণ্ডল নামে তিন জনের মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছে। বাকি দু’জন এখনও নিখোঁজ৷ পুলিশের বিরুদ্ধে মৃতদেহ লোপাটেরও অভিযোগ করেছেন তিনি৷ রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই ঘটনা ঘটিয়েছে। দলের সর্বভারতীয় সভাপতি তথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে দলের তরফে প্রাথমিক রিপোর্ট পাঠানো হয়েছে।’’ বিজেপির বিরুদ্ধে হামলার পালটা অভিযোগে সরব তৃণমূলও৷ উত্তর ২৪ পরগনা জেলা তৃণমূল সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের দাবি, ‘‘বিজেপির গুন্ডারা আমাদের কর্মীকে প্রথমে গুলি করে এবং পরে কুপিয়ে খুন করে।’’ দলের ৬ জন মহিলা কর্মী গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে ভরতি বলে তিনি জানান।

[ আরও পড়ুন: ভাষাচর্চার অনন্য নিদর্শন, লখনউ বাজারে সংস্কৃত নাম চেনাচ্ছে সবজি ]

উল্লেখ্য, তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে শনিবার দুপুর থেকেই উত্তপ্ত উত্তর ২৪ পরগনার সন্দেশখালি। দুই রাজনৈতিক দলের সংঘর্ষে প্রাণ গিয়েছে দু’পক্ষের ৩ জনের। যদিও বিজেপির অভিযোগ, স্থানীয় তৃণমূল নেতা শাহজাহান শেখের নেতৃত্বে দুষ্কৃতী বাহিনী শনিবার সন্ধ্যায় তাঁদের উপর হামলা চালিয়েছে৷ এবং ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে প্রদীপ মণ্ডল, তপন মণ্ডল এবং সুকান্ত মণ্ডলের। নিখোঁজ আরও অনেকে৷ তৃণমূলের পালটা অভিযোগ, একটি বৈঠক শেষে এলাকায় মিছিল বের করেছিল তৃণমূল। সেই মিছিলে হামলা চালিয়েছে বিজেপি৷ এবং তৃণমূল কর্মী কায়ুম মোল্লাকে গুলি করে ও কুপিয়ে খুন করেছে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে