BREAKING NEWS

১৯  মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

খ্রিস্টানদের উপরে লাগাতার হামলা, কেন্দ্রের কাছে রিপোর্ট তলব সুপ্রিম কোর্টের

Published by: Anwesha Adhikary |    Posted: September 1, 2022 7:26 pm|    Updated: September 1, 2022 7:26 pm

Supreme Court seeks report from MHA about attack on Christians | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খ্রিস্টান মিশনারিদের উপরে হামলার ঘটনায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। সাম্প্রতিককালে উত্তরপ্রদেশ-সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে খ্রিস্টানদের উপরে হামলার ঘটনা ঘটেছে। সেই ঘটনাগুলির প্রেক্ষিতেই বৃহস্পতিবার রিপোর্ট তলব করেছে শীর্ষ আদালত। খ্রিস্টানদের (Christian) উপরে লাগাতার হামলা প্রসঙ্গে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়। সেই কারণেই নির্দিষ্ট কয়েকটি রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব করা হয়েছে।

বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এবং হিমা কোহলির বেঞ্চের তরফে বলা হয়েছে, উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, হরিয়ানা, কর্ণাটক, উড়িষ্যা, ছত্তিশগড়, ঝাড়খণ্ড-এই সাতটি রাজ্য থেকে বারবার খ্রিস্টানদের উপরে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। শীর্ষ আদালত আরও জানিয়েছে, নির্দিষ্ট কোনও ব্যক্তির বিরুদ্ধে আক্রমণ করার অর্থ সেই সম্প্রদায়কে আঘাত করা নয়। কিন্তু এই বিষয়টি নিয়ে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেই কারণেই যে অভিযোগ উঠেছে, তা খতিয়ে দেখা দরকার।

[আরও পড়ুন: ঝাড়খণ্ডে রাজনৈতিক ‘নাটক’ অব্যাহত, এবার রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করলেন বিধায়করা]

শীর্ষ আদালতে কেন্দ্রের সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা জানিয়েছেন, এই অভিযোগের অধিকাংশই ভুয়ো। ব্যক্তিগত স্বার্থসিদ্ধির জন্যই এহেন অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আসলে এহেন অভিযোগ করে দেশের শান্তি বিঘ্নিত করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। দেশের বাইরের শক্তি যাতে অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে পারে, সেই ব্যবস্থা করার জন্যই ভুয়ো অভিযোগ দায়ের করা হচ্ছে। তাই আদালত যেন জনস্বার্থ মামলার ভিত্তিতে বিচার না করে।

সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলি থেকে দু’মাসের মধ্যে রিপোর্ট সংগ্রহ করতে হবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রককে (Ministry of Home Affairs)। তারপরে আদালতে সেই রিপোর্ট পেশ করতে হবে। এহেন অভিযোগ খতিয়ে দেখতে আগেই নোডাল অফিসার নিয়োগ করেছিল সুপ্রিম কোর্ট। তা সত্বেও কেন এই ধরনের ঘটনা ঘটছে, সেই নিয়েই উদ্বিগ্ন শীর্ষ আদালত। প্রসঙ্গত, গতকালই পাঞ্জাবের একটি গির্জায় হামলা চালিয়ে যীশু ও মেরির মূর্তি ভেঙে দিয়েছিল দুস্কৃতীরা। সেই সঙ্গে যাজকের গাড়িও জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছিল। তবে এই অভিযোগে এখনও কারোওর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করা হয়নি। 

[আরও পড়ুন: আচমকা হানা সন্দেহজনক ড্রোনের, গুলি করে নামাল তাইওয়ানের সেনা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে