২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

শনিবার সকালেই অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণা করবে সুপ্রিম কোর্ট, জোরদার নিরাপত্তা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 8, 2019 9:32 pm|    Updated: November 8, 2019 9:35 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাল সকাল সাড়ে ১০টায় অযোধ্যা মামলা নিয়ে রায়দান করবে সুপ্রিম কোর্ট। শুক্রবার সন্ধ্যায় এ কথা জানিয়েছে শীর্ষ আদালত। সাংবিধানিক বেঞ্চে রায় ঘোষণা হবে। রায়দানের সময় ৫ প্রধান মামলাকারীকে এজলাসে থাকার নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

আগামী ১৭ নভেম্বর প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের অবসর নেওয়ার কথা। তার আগেই যে অযোধ্যা মামলার রায়দান হয়ে যাবে, তা একপ্রকার নিশ্চিত ছিল। তবে এত তাড়াতাড়ি রায়দানের আশা করেনি কেউই। শনিবার সাধারণত সুপ্রিম কোর্ট বন্ধ থাকে। তাই মনে করা হচ্ছিল পরের সপ্তাহে রায় দেবে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। কিন্তু আচমকাই শুক্রবার সন্ধ্যাবেলা রায়দানের কথা জানায় সুপ্রিম কোর্ট। তবে রায়দানের পর দেশের সর্বত্র অশান্তির বাতাবরণ তৈরির আশঙ্কা রয়েছে। তা যাতে না হয়, প্রতিটি রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করছে কেন্দ্র। তবে রায় যাই হোক দেশের সর্বত্র শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ রাজ্যেও যাতে অযোধ্যা রায়দানের পর কোনও অশান্তি সৃষ্টি না হয়, সেই আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

[ আরও পড়ুন: প্রবল তুষারপাতে বিপর্যস্ত ভূস্বর্গের জনজীবন, চার সেনাকর্মী-সহ মৃত ৭ ]

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের পক্ষ থেকে দেশের সমস্ত রাজ্যকে সজাগ থাকার জন্য একটি নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি, মন্ত্রকের পক্ষ থেকে অযোধ্যায় অতিরিক্ত বাহিনী পাঠানো হয়েছে। এই অতিরিক্ত বাহিনী আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় রাজ্য সরকারকে সহায়তা করবে। কোনও অবাঞ্ছিত ঘটনা যাতে না ঘটে, তা নিশ্চিত করতেই এই অতিরিক্ত বাহিনী পাঠানো হয়েছে বলে সূত্রের খবর। ৪০টি গ্রুপের প্রতিটিতে ১০০ জন করে জওয়ান সম্বলিত আধাসামরিক বাহিনী অযোধ্যার উদ্দেশে ইতিমধ্যেই রওনা হয়ে গিয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে একটি সাধারণ নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। যাতে তারা সমস্ত সংবেদনশীল স্থানে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন করতে পারে। দেশের কোনও জায়গায় কোনও রকম অপ্রীতিকর ঘটনা যাতে না ঘটে, তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যেই এহেন পদক্ষেপ করা হয়েছে।

[ আরও পড়ুন: ১০ মাস ধরে মেলেনি বেতন, মানসিক অবসাদে আত্মঘাতী বিএসএনএল কর্মী ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement