BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘আমি তো আছি’, সৌদিতে আটকে থাকা ভারতীয়কে টুইটারে আশ্বাস সুষমার

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 18, 2019 5:38 pm|    Updated: April 18, 2019 5:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিরোধীরা তাঁর সমালোচনা করেন। বলেন, বিদেশমন্ত্রী হয়েও বিদেশনীতি নির্ধারণে কোনও উল্লেখযোগ্য ভূমিকাই নেই সুষমা স্বরাজের। বিদেশ নীতি সংক্রান্ত যাবতীয় সিদ্ধান্ত নাকি নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই ইস্যুতে সুষমা স্বরাজের সমালোচনা করলেও, একটি বিষয়ে বিরোধীরাও একমত হবেন, যে যখনই কোনও ভারতীয় বিদেশে গিয়ে বিপদে পড়েছেন তখনই তাঁর সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন বিদেশমন্ত্রী। বৃহস্পতিবারও এমনই এক বিপর্যস্তের সাহায্যে এগিয়ে এলেন বিদেশমন্ত্রী। বলা ভাল, তাঁর প্রাণ বাঁচালেন সুষমা।

[আরও পড়ুন: ভোটের বাজারে বড় চমক, কংগ্রেস প্রার্থীর হয়ে প্রচার মুকেশ আম্বানির]

টুইটারে সৌদি আরব থেকে সুষমার কাছে সাহায্য চেয়ে আবেদন করেন আলি নামের এক ভারতীয়। দ্রুত বিদেশমন্ত্রী তাঁকে সবরকম সাহায্যের ব্যাপারে আশ্বস্ত করলেন। আলি নামের ওই ব্যক্তি টুইটারে বিদেশমন্ত্রীকে ট্যাগ করে লেখেন, “আমি প্রায় একবছর ধরে দেশে ফেরার জন্য ভারতীয় দূতাবাসে সাহায্যের জন্য ঘুরছি। কিন্তু আমার সবরকম চেষ্টা সত্ত্বেও কোনও সাহায্য পায়নি। দেশে আমার চারটে বাচ্চা আছে। এরপর যদি দেশে ফিরতে না পারি তাহলে আমার আত্মহত্যা করা ছাড়া আর কোনও উপায় থাকবে না।”

[আরও পড়ুন: বিজেপি মুখপাত্রকে লক্ষ্য করে জুতো, সুর কাটল সাংবাদিক বৈঠকের]

এই টুইটটি দেখামাত্রই আলিকে অনেকটা অভিভাবকের মতোই আশ্বস্ত করেন বিদেশমন্ত্রী। বলেন, আত্মহত্যার কথা ভাবতে নেই, আমরা তো আছি। আমাদের দূতাবাস আপনাকে সবরকম সাহায্য করবে। আলিকে আশ্বস্ত করার সঙ্গে সঙ্গেই সৌদিতে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসকেও এ বিষয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন সুষমা স্বরাজ। এই প্রথম নয়, এর আগেও একাধিকবার দেখা গিয়েছে বিদেশে আক্রান্ত বা বিপর্যস্ত ভারতীয়দের সাহায্যে এগিয়ে আসেন বিদেশমন্ত্রী। এ জন্য তাঁকে টুইটারে ট্রোলও হতে হয়েছে। কিন্তু, এসবের মধ্যেও বিদায়ী বিদেশমন্ত্রী আরও একবার বিপর্যস্ত ভারতীয়র সাহায্যে এগিয়ে এলেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement