BREAKING NEWS

৭  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বড়সড় সাফল্য সন্ত্রাসদমন শাখার, গ্রেপ্তার সন্দেহভাজন লস্কর জঙ্গি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 29, 2017 1:04 pm|    Updated: September 21, 2019 5:07 pm

Suspected LeT terrorist arrested from Lucknow

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বড়সড় সাফল্য পেল উত্তরপ্রদেশ পুলিশের জঙ্গিদমন শাখা। লখনউ থেকে লস্কর জঙ্গি সন্দেহে গ্রেপ্তার করা হল একজনকে। সূত্রের খবর, মঙ্গলবার চৌবাগা বাসস্ট্যান্ড থেকে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ-র সহযোগিতায় ওই জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করে। ধৃতের কাছ থেকে মোবাইল ফোন, ব্যাঙ্কের কাগজপত্র-সহ আরও বেশ কিছু আপত্তিকর জিনিসপত্র পাওয়া গিয়েছে। পুলিশ সেগুলি বাজেয়াপ্ত করেছে।

[দেশের সব গ্রামে রামমূর্তি গড়তে চায় ভিএইচপি]

কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা জানিয়েছেন, দেশে ঢুকে পড়েছে পাক জঙ্গি সংগঠন লস্করের ‘স্লিপার সেল’রা। ভারতে বড়সড় নাশকতার ছক রয়েছে জঙ্গিদের। ভিড়ের মধ্যে গায়ে বিস্ফোরক বোঝাই জ্যাকেট পরে মিশে গিয়ে নাশকতা ঘটাতে পারে জঙ্গিরা। গুজরাট ভোটের আগে দেশে আতঙ্ক তৈরি করাই জঙ্গিদের লক্ষ্য। জঙ্গিদের খোঁজে দেশজুড়ে লাগাতার অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ ও এনআইএ। সেরকমই এক অভিযানে ওই জঙ্গি ধরা পড়ে। জানা গিয়েছে, ধৃতর নাম শেখ আবদুল নইম। তার বাড়ি মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদে। পুলিশের দাবি, তাকে ভারতে রেইকির কাজে নিযুক্ত করে লস্করের মাথারা।

অভিযুক্ত দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, হিমাচল প্রদেশের জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্রগুলিতে ঘুরে সেখানকার ছবি তুলত ও খুঁটিনাটি তথ্য লিখে রাখত। কোথায় জঙ্গি হামলা হলে সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হবে, সেটাই রেইকি করত অভিযুক্ত। নইমকে দিল্লির একটি আদালতে তোলা হলে তাকে ১০ দিনের এনআইএ হেফাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশও তাকে গ্রেপ্তার করেছিল। ২০০৭-এ দুই পাকিস্তানি ও এক কাশ্মীরি নাগরিককে বাংলাদেশ থেকে ভারতে অনুপ্রবেশে সাহায্য করে নইম। কিন্তু ২০১৪-তে ছত্তিসগড়ের একটি জেল থেকে পালায় সে। লস্কর কমান্ডোদের সঙ্গে নইমের আঁতাঁত রয়েছে বলে জানতে পেরেছেন গোয়েন্দারা। ভারতের বিভিন্ন জায়গায় জঙ্গিদের ঘাঁটি তৈরিতে সাহায্য করত নইম। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে লস্করের অন্যান্য অপারেটিভদের খোঁজ করবে নিরাপত্তারক্ষী বাহিনী।

[‘সোমনাথ মন্দির চাননি নেহেরু’, গুজরাটে কংগ্রেসকে আক্রমণ মোদির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে