BREAKING NEWS

২৮ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

আইনি ব্যবস্থাতেও হয়নি শিক্ষা, চিকিৎসকদের ফের ‘থুতু ছুঁড়ল’ নিজামুদ্দিনের জমায়েতকারীরা

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 4, 2020 11:19 am|    Updated: April 4, 2020 1:19 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা সংক্রমণের আবহে আশঙ্কার পারদ আরও চড়িয়ে দিয়েছেন দিল্লির তবলিঘি জামাতের অনুষ্ঠানের জমায়েতকারীরা। একের পর এক করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন তারা। তাই আপাতত বেশিরভাগ জমায়েতকারীকেই দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। কিন্তু চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগ উঠেছে নিজামুদ্দিনের জমায়েতকারীদের বিরুদ্ধে। এবার একই অভিযোগে সরব হলেন কানপুরের গণেশ শংকর বিদ্যার্থী মেমোরিয়াল মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ।

ওই মেডিক্যাল কলেজের প্রিন্সিপাল আরতি চন্দানি বলেন, “নিজামুদ্দিনের জমায়েতকারীদের মধ্যে মোট বাইশ জন কানপুরের গণেশ শংকর বিদ্যার্থী মেমোরিয়াল মেডিক্যাল কলেজে রয়েছে। করোনা রোগীদের সংস্পর্শে আসায় তাদেরকে কোয়ারেণ্টাইনে রাখা হয়েছে। তবে তাদের নিয়ে আমাদের হাসপাতালের চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। তারা বেশিরভাগ সময়ই দুর্ব্যবহার করছে। হাসপাতালের বিভিন্ন জায়গায় ঘোরাফেরা করতে করতে থুতু ছেটাচ্ছে। তার ফলে খুব স্বাভাবিকভাবেই রোগ সংক্রমণের আশঙ্কাও বাড়ছে।”

[আরও পড়ুন: বাহ তাজ! চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য বিলাসবহুল হোটেল খুলে দিল টাটা গোষ্ঠী]

উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদের এমএমজি জেলা হাসপাতালেও কোয়ারেন্টাইনে ছিল অন্তত ছজন। ওই হাসপাতালের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের অভিযোগ, “নিজামুদ্দিনের যে সমস্ত জমায়েতকারীরা এই হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রয়েছে, তাদের কার্যকলাপে আমরা জেরবার। তারা হাসপাতালের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াচ্ছে। অনেকেই নিম্নাঙ্গে কোনও পোশাক রাখছে না। মহিলা স্বাস্থ্যকর্মীদের উদ্দেশে অশালীন অঙ্গভঙ্গি করছে। বিভিন্ন রকমের অশালীন গান শুনছে। এমনকী হাসপাতালের সাফাই কর্মীদের কাছ থেকে সিগারেট চাইছে তারা। চাহিদা অনুযায়ী জোগান দিতে না পারলেই দুর্ব্যবহার করতে শুরু করছে।”

এ বিষয়টি চিঠি লিখে উত্তরপ্রদেশ পুলিশকে জানান তিনি। সেই অনুযায়ী শুক্রবার ওই জমায়েতকারীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। জাতীয় নিরাপত্তা আইনে প্রত্যেকের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ তাদের মানবজাতির শত্রু বলেও কটাক্ষ করেন। তবে তাতেও হুঁশ ফেরেনি জমায়েতকারীদের। এত কাণ্ডের পরেও আবার নতুন করে কানপুরের গণেশ শংকর বিদ্যার্থী মেমোরিয়াল মেডিক্যাল কলেজে উঠেছে দুর্ব্যবহারের অভিযোগ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement