BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পরীক্ষা ছাড়াই দশম ও একাদশ শ্রেণির সব পড়ুয়া পাশ, ঘোষণা তামিলনাড়ু সরকারের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: June 9, 2020 9:10 pm|    Updated: June 9, 2020 9:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আতঙ্কে দেশজুড়ে বন্ধ স্কুল-কলেজ, শিক্ষা প্রতিষ্টান। সিলেবাস কী করে শেষ হবে, চিন্তায় ঘুম হচ্ছে না পড়ুয়া-অভিভাবকদের। কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিওয়াল তো আবার আগামী শিক্ষাবর্ষে সিলেবাসের বোঝা কমানোর কথা ভাবছেন। তার উপর বাংলায় সেই কবে থেকেই উচ্চমাধ্যমিকের বাকি তিনটি পরীক্ষা নিয়ে জট চলছে। পরীক্ষার দিন ঘোষণা করেও পিছিয়ে দিচ্ছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু এসবের ধার ধারেননি তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যের দশম-একাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের পরীক্ষা ছাড়াই পাশ করিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। যা নিয়ে তামিলনাড়ুতে হইচই।

লকডাউনের জেরে এতদিন দক্ষিণের এই রাজ্যে স্থগিত ছিল দশম ও একাদশ শ্রেণির পরীক্ষা। কিন্তু দেশের তালা খুললেও স্কুল-কলেজের গেট এখনই খুলতে নারাজ মুখ্যমন্ত্রী এডাপ্পাডি কে পালানিস্বামী। মঙ্গলবার তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, কোনও পরীক্ষা হবে না। দশম ও একাদশ শ্রেণির সব পড়ুয়া উত্তীর্ণ। কিন্তু কোন ভিত্তিতে নম্বর দেওয়া হবে তাদের? শিক্ষাদপ্তরের নির্দেশিকা অনুযায়ী, স্কুলের ত্রৈমাসিক-ষান্মাসিক পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে দেওয়া হবে ৮০ শতাংশ নম্বর। বাকি ২০ শতাংশ দেওয়া হবে স্কুল বন্ধ হওয়ার দিন পর্যন্ত স্কুলে হাজিরার উপর।

[আরও পড়ুন: আগামী শিক্ষাবর্ষেই কমতে পারে স্কুল পড়ুয়াদের সিলেবাস, ইঙ্গিত কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর]

তবে, নম্বর প্রদানের এই পদ্ধতি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা। এইভাবে পাশ করিয়ে দিলে মেধার কি সঠিক মূল্যায়ণ হবে, প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। তবে, দশম-একাদশ শ্রেণি নিয়ে সিদ্ধান্ত হলেও দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষার বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছে তামিলনাড়ু সরকার। শীঘ্রই এ বিষয়ে নির্দেশিকা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: করোনার মারে ৩.২ শতাংশ সংকুচিত হতে পারে ভারতের অর্থনীতি: বিশ্ব ব্যাংক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement