১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অনলাইন ক্লাসের ফাঁকে পর্নোগ্রাফি, বালককে টানা দেড় মাস ‘যৌন হেনস্তা’, ধৃত ৩ নাবালক

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 24, 2022 9:01 am|    Updated: January 24, 2022 9:13 am

Tamil Nadu minors arrested for physical abuse of a boy । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নাবালিকাকে যৌন হেনস্তার ঘটনা নতুন নয়। এমন ঘটনা হামেশাই নজরে আসে। তবে তামিলনাড়ুর (Tamil Nadu) তুতিকোরিনের ঘটনা নাড়া দিচ্ছে প্রায় সকলকেই। কারণ, ৯ বছরের বালককে একটানা দেড় মাস ধরে যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠল তিন নাবালকের বিরুদ্ধে। পুলিশ ওই নাবালকদের বিরুদ্ধে পকসো আইনে ব্যবস্থাও নিয়েছে।

কোভিলপাত্তি পূর্ব থানার পুলিশ আধিকারিকরা এই ঘটনাটি জানতে পারেন গত ২১ জানুয়ারি। ওইদিনই নাবালকের পরিবারের তরফে এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। ওই বালকের পরিবারের দাবি, এক বন্ধুর বাড়িতে অনলাইন গেম খেলতে যেত সে। সঙ্গে থাকত আরও তিন বন্ধু। অভিযোগ, খেলার মাঝে দুই নাবালক ৯ বছর বয়সি ওই বালককে ধর্ষণ করে। টানা দেড় মাস ধরে চলে অত্যাচার।

[আরও পড়ুন: বেজে উঠল ‘কদম কদম বাড়ায়ে যা’, ইন্ডিয়া গেটে নেতাজির হলোগ্রাম মূর্তি উদ্বোধন মোদির]

পরিবারের দাবি, প্রথমে বাড়িতে পুরো বিষয়টি জানায়নি ওই বালক। তবে আচরণে পরিবর্তন হওয়ায় সন্দেহ হয় অভিভাবকদের। বাড়িতে যেন আতঙ্কে সিঁটিয়ে থাকত সে। এরপর অসুস্থ হয়ে পড়ায় গোটা ঘটনাটি জানাজানি হয়। বর্তমানে অসুস্থ ওই বালক। টানা দশদিন ধরে সে ভরতিও ছিল হাসপাতালে।

এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনার অভিযোগ পাওয়ামাত্রই পুলিশ নড়েচড়ে বসে। শুরু হয় তদন্ত। পুলিশ ওই বালকের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে তিন অভিযুক্তের খোঁজ পায়। পুলিশ জানতে পারে, অভিযুক্তরা অষ্টম শ্রেণির ছাত্র। অনলাইন ক্লাসের ফাঁকে পর্নোগ্রাফিও দেখত অভিযুক্তরা। আর তা দেখে অনুকরণ করতে গিয়েই এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে। পকসো আইনে পুলিশ মামলা রুজু করে। ওই তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাদের জেরা করে আরও নানা তথ্য পাওয়া যাবে বলেই আশা তদন্তকারীদের।

[আরও পড়ুন: Coronavirus Update: ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছে বাংলা, গত ২৪ ঘণ্টায় অনেকটা কমল রাজ্যের করোনা সংক্রমণ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে