BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কাশ্মীরে গুলির লড়াই, সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে নিকেশ তিন জঙ্গি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 6, 2018 11:07 am|    Updated: June 6, 2018 11:14 am

Terrorists attack Army camp, police station in J&K’s Bandipora

রোজার মাসেও নিয়ন্ত্রণরেখার ওপার থেকে পাক গোলাগুলি বর্ষণ অব্যাহত৷

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষে উত্তপ্ত জম্মু-কাশ্মীর৷ মাচিল ও বান্দিপুরা সেক্টরে  লাগাতার যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন পাক সেনার৷ বুধবার সীমান্ত পেরিয়ে তিন পাক জঙ্গির ভারতে ঢোকার চেষ্টা রুখে দেয় ভারতীয় জওয়ানরা৷ সীমান্ত অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালানোর সময় তিন পাক জঙ্গিকে খতম করে সেনা৷ অন্যদিকে, বান্দিপুরা সেক্টরে ভারতীয় সেনা ঘাঁটি লক্ষ্য করে হামলা চালায় পাক জঙ্গিরা৷ ঘটনায় বেশ কয়েকজন গ্রামবাসী ও দুই জওয়ান জখম হন৷ এই নিয়ে  টানা সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করেই চলেছে পাক সেনা৷

রোজার মাসেও নিয়ন্ত্রণরেখার ওপার থেকে পাক গোলাগুলি বর্ষণ অব্যাহত৷ এদিন জম্মু-কাশ্মীরের মাচিল ও বান্দিপুরা সেক্টরের নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন গ্রামগুলি লক্ষ্য করে গুলি চালানোর সঙ্গে সঙ্গে মর্টার হামলা চালায় পাক সেনা। পাক সেনার এই হামলায় বেশ কয়েকজন সাধারণ মানুষ গুরুতর জখম হন৷

[জোর করে মহিলা যাত্রীর পোশাক ছিঁড়ে ছবি তোলার অভিযোগ ওলা চালকের বিরুদ্ধে]

গত দু’সপ্তাহ থেকে পবিত্র রমজান মাসেও পাক সেনার একতরফা হামলা জারি রয়েছে। পরিস্থিতির কারণে নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন প্রায় ১০০টি গ্রামের ছিয়াত্তর হাজারেরও বেশি বাসিন্দা তাঁদের ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ স্থানে চলে গিয়েছেন। এহেন অবস্থায় পাকিস্তানকে উচিত শিক্ষা দিতে যুদ্ধ করার দাবি জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা।

এক শীর্ষ পুলিশ কর্তা এদিন জানিয়েছেন, একটানা সীমান্তের ওপার থেকে গুলি ও মর্টার হামলা চালাচ্ছে পাক সেনা।এদিন চার থেকে ছয় জনের একটি জঙ্গি দল বান্দিপুরা সেক্টরের সেনা ঘাঁটি লক্ষ্য করে হামলা চালায়৷ পাল্টা, জবাব দেয় সেনা৷ পাক জঙ্গিদের গুলিতে দুই জওয়ান জখম হন৷ জঙ্গিদের খোঁজে চলছে সেনা অভিযান৷

[মমতার তত্ত্বেই সায়, বিজেপি হটাতে বিরোধী ঐক্যের ডাক শরদ পাওয়ারের]

তবে, শুধু সেনা ঘাঁটিতেই নয়, এর আগেও একাধিকবার সাম্বা জেলায় পাক সেনা গুলি চালাতে শুরু করে। পাক সেনার গুলিতে দুই নিরীহ মানুষের প্রাণ যায়। জখম হন ১৫-২০জনের বেশি। পাক সেনা মূলত নিয়ন্ত্রণরেখা সংলগ্ন গ্রামগুলি এবং সীমান্ত চৌকি লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। এদিনও ঠিক একই ভাবে হামলা চালায় পাক জঙ্গিরা৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে