BREAKING NEWS

২৬ বৈশাখ  ১৪২৮  সোমবার ১০ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পিপিই পরে টানা ১৫ ঘণ্টা! ঘামে ভেজা চিকিৎসকের ছবি ভাইরাল নেট দুনিয়ায়

Published by: Biswadip Dey |    Posted: April 30, 2021 7:31 pm|    Updated: April 30, 2021 8:05 pm

Viral-doctor

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেখলে মনে হবে সদ্য স্নান করে এসেছেন পোশাক পরা অবস্থাতেই। কিন্তু আসলে জল নয়, ঘামেই ভিজে রয়েছে তাঁর সারা শরীর। তিনি দিল্লির চিকিৎসক সোহিল। পিপিই (PPE) পরিহিত অবস্থায় টানা ১৫ ঘণ্টা এমনই দমবন্ধ অবস্থায় করোনা রোগীদের সেবায় নিয়োজিত তিনি। তাঁর এই ছবি ভাইরাল (Viral) নেট দুনিয়ায়। নেটিজেনরা মুগ্ধ এই কোভিড (COVID-19) যোদ্ধার অদম্য উদ্দীপনা ও আদর্শ দেখে।

গত বুধবার ছবিটি শেয়ার করেছেন সোহিল। একটি ছবিতে তাঁকে দেখা যাচ্ছে জামা-প্যান্ট পরে ঘর্মাক্ত অবস্থায়। অন্য ছবিতে তিনি রয়েছেন পিপিই পরিহিত অবস্থায়। ছবি দু’টি শেয়ার করে তিনি ক্যাপশনে লেখেন, ‘‘দেশের সেবা করতে পেরে গর্বিত।’’ এছাড়াও তিনি টুইটারে লেখেন, ‘‘সমস্ত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের পক্ষ থেকে জানাই, আমরা সত্যিই কঠোর পরিশ্রম করছি। পরিবারের থেকে বহু দূরে থেকে। কখনও কোনও পজিটিভ রোগীর থেকে এক ফুট দূরত্বে থেকে। কখনও বা গুরুতর অসুস্থ প্রবীণের থেকে এক ইঞ্চি দূরত্বে। সকলকে অনুরোধ, টিকা নিন। এটাই একমাত্র সমাধান। নিরাপদে থাকুন।’’

তাঁর ওই টুইট মুহূর্তের মধ্যেই ছড়িয়ে পড়ে নেট দুনিয়ায়। দ্রুতই ভাইরাল হয়ে যায় তা। এই দু’দিনে তা দেখে ফেলেছেন প্রায় দেড় লক্ষ মানুষ। গত বছর করোনার প্রথম ঢেউ দেশে আছড়ে পড়ার পর থেকেই পিপিই কিট পরে ঘণ্টার পর ঘণ্টা পরিশ্রম করতে দেখা গিয়েছে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের।

[আরও পড়ুন: কেন্দ্র ও রাজ্যে ভ্যাকসিনের পৃথক দাম কেন? মোদি সরকারকে বিঁধল সুপ্রিম কোর্ট]

এবছর দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় আরও খারাপ হয়েছে পরিস্থিতি। দৈনিক সংক্রমণ চলেছে ৪ লক্ষের দিকে। এই পরিস্থিতিতে স্বাভাবিক ভাবেই চাপ আরও বহুগুণ বেড়েছে চিকিৎসকদের উপরে। তারই চরম উদাহরণ হিসেবে ধরা যেতে পারে সোহিলের এই ঘর্মাক্ত শরীরের ছবিটি। এই একটি ছবিই যেন প্রকাশ করে দিচ্ছে এই মুহূর্তে কোভিড যোদ্ধাদের নিরলস কর্মব্যস্ততাকে।

[আরও পড়ুন: পর্যাপ্ত টিকার অভাব, ১ মে থেকে প্রাপ্ত বয়স্কদের টিকাকরণে নারাজ একাধিক রাজ্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement