১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রাথমিক বিপত্তি কাটিয়ে ক্ষুদ্রতম রকেটের সফল উৎক্ষেপণ ইসরোর, মহাকাশে পড়ুয়াদের তৈরি স্যাটেলাইট

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: August 7, 2022 12:52 pm|    Updated: August 7, 2022 2:30 pm

This Sunday First Launch Of New ISRO Rocket Runs Into Trouble | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বাধীনতা দিবসের আগে ইতিহাস তৈরি করল ইসরো (ISRO)। এদিন ক্ষুদ্রতম রকেট (Smallest Rocket) উৎক্ষেপণ করল ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অরগানাইজেশন। অন্ধ্রপ্রদেশের (Andhra Pradesh) শ্রী হরিকোটা থেকে আজ সকালে এই রকেট উৎক্ষেপণ করা হয়। তবে রবিবারের উৎক্ষেপণে কিছুটা ধাক্কা খেয়েছে ইসরো। উৎক্ষেপণের আগের মুহূর্তের বেশ কিছু তথ্য হারিয়ে গিয়েছে। বিজ্ঞানীরা সেই তথ্য পুনরুদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছেন, জানা গিয়েছে ইসরো সূত্রে।

এদিনের সফল উৎক্ষেপণের পর ইসরোর বিজ্ঞানী এবং ইঞ্জিনিয়াররা চিন্তায় ছিলেন, ১২০ টন ওজনের ছোট স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকেল দু’টি স্যাটেলাইটকে নির্দিষ্ট কক্ষপথে প্রেরণ করতে পারবে কিনা তা নিয়ে। যদিও সফল ভাবেই সেই কাজ করেছে ছোট রকেট। এই রকেটে যে স্যাটেলাইট রয়েছে পৃথিবীর নিম্ন অক্ষে তা প্রদক্ষিণ করবে বলে জানানো হয়েছে। এর আগে এত ছোট রকেট কখনও লঞ্চ করা হয়নি ইসরো থেকে।

[আরও পড়ুন: সরকারের বিরুদ্ধে রাস্তায় পড়ুয়ারা, উত্তাল মণিপুর! সাম্প্রদায়িক অশান্তির আশঙ্কায় বন্ধ ইন্টারনেট]

উল্লেখ্য, ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ বছর উপলক্ষে ৭৫০ জন স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের দিয়ে একটি স্যাটেলাইট বানানো হয়েছে। ছোট রকেটে সেই স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ করা হয় এদিন। ৭৫০ জন স্কুলপড়ুয়ার হাতে তৈরি স্যাটেলাইটটিও ঘুরবে পৃথিবীর অক্ষে। সেখান থেকে খুঁটিনাটি তথ্য পাঠিয়ে দেবে ইসরোর বিজ্ঞানীদের জন্য। “স্পেস কিডজ ইন্ডিয়া” নামক একটি মহাকাশ গবেষণা সংস্থার অধীনে ৭৫০ স্কুল পড়ুয়ারা মিলেই এই স্টুডেন্ট স্যাটেলাইটটি তৈরি করেছে। রাত ২ টো থেকে শুরু হওয়া কাউন্টডাউনে সাত ধাপে উৎক্ষেপণ হয় ক্ষুদ্র রকেটের। যে সমস্ত ছাত্রীরা এই স্যাটেলাইটটি তৈরি করেছিল, তারাও উপস্থিত ছিল উৎক্ষেপণের সময়ে।

[আরও পড়ুন: ন্যাশানাল হেরাল্ড মামলায় সোনিয়া-রাহুলের জবাবে সন্তুষ্ট নয় ইডি! ফের হতে পারে জেরা]

ইসরো সূত্রে জানা গিয়েছে, এই ক্ষুদ্রতম রকেট বা স্মল স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকলটি লম্বায় ৩৪ মিটার। এর ভেহিকল ডায়ামিটারের দৈর্ঘ্য ২ মিটারের বেশি নয়। এদিনের নজিরবিহীন উৎক্ষেপণ নিয়ে ইসরোর চেয়ারম্যান এস সোমনাথ বলেন, “যেমনটা আশা করা হয়েছিল এসএসএলভি-ডি১ প্রতিটি ধাপে সেভাবেই কাজ করেছে। উৎক্ষেপণের আগের মুহূর্তের কিছু তথ্য হারিয়ে গিয়েছে। আমরা যাবতীয় তথ্য বিশ্লেষণ করছি মিশনের অন্তিম ফল কী হয়, তা নির্ণয় করতে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে