BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সুকমায় জওয়ানদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে মৃত ৩ মাওবাদী, দাবি পুলিশের

Published by: Arupkanti Bera |    Posted: May 17, 2021 8:46 pm|    Updated: May 17, 2021 8:46 pm

Three people were killed in an exchange of fire between Maoists and security forces in Sukma । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাওবাদী (Maiost) এবং নিরাপত্তা বাহিনীর গুলির লড়াইয়ে প্রাণ গেল অন্তত ৩ জনের। গ্রামবাসীদের নিয়ে সুকমার (Sukma) ওই যৌথ বাহিনীর ক্যাম্পে হামলা চালায় মাওবাদীরা। পালটা গুলি চালায় জওয়ানরা। তাতেই মৃত্যু হয় আক্রমণকারী ৩ জনের। তারা মাওবাদী বলেই মনে করছেন পুলিশ আধিকারিকরা। তবে নির্দিষ্ট করে তাদের পরিচয় জানার চেষ্টা হচ্ছে। যে ক্যাম্পে হামলা চালানো হয়েছে সেখান থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরেই গত এপ্রিলে মাওবাদী হামলায় ২২ জনওয়ানের মৃত্যু হয়।

ছত্তিশগড়ের সুকমায় সিলগের এলাকায় নতুন একটি ক্যাম্প তৈরি করেছে যৌথ বাহিনী। রবিবার সন্ধ্যা পর্যন্তও এই ক্যাম্প স্থাপনের বিরোধিতায় বিক্ষোভ দেখিয়েছেন গ্রামবাসীরা। পুলিশ আধিকারিকদের দাবি, মাওবাদীদের চাপে এই বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। এই এলাকাটি মাওবাদীদের ঘাঁটি হিসাবেই পরিচিত। তাই তাদের গতিবিধি আটকাতে ক্যাম্প তৈরি করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: করোনার তৃতীয় ঢেউ ক্ষতি করতে পারে শিশুদের! সংক্রমণ রুখতে বিশেষ পরামর্শ ডা. দেবী শেঠির]

এর পর সোমবার দুপুর নাগাদ মাওবাদীরা গ্রামবাসীদের আড়ালে নিয়ে ওই ক্যাম্পে হামলা চালায়। গুলি চালাতে চালাতে এগিয়ে আসে ক্যাম্পের দিকে। পালটা গুলি চালান জওয়ানরাও। সেই গুলিতেই ৩ জনের মৃত্যু হয়েৈছে বলে জানানো হয়েছে। নির্দিষ্ট করে তাদের পরিচয় জানার চেষ্টা হচ্ছে। তবে এরা মাওবাদী সদস্য বলেই দাবি পুলিশের। গুলির লড়াইয়ে কোনও জওয়ান আহত হননি বলে জানানো হয়েছে পুলিশের তরফে।

[আরও পড়ুন: বিধান পরিষদ গঠনের পথে এক ধাপ এগোল রাজ্য, মন্ত্রিসভার বৈঠকে পাশ প্রস্তাব]

গত ৩ এপ্রিল মাওবাদীদের সঙ্গে গুলির লড়াইয়ে যেখানে ২২ জওয়ানের মৃত্যু হয়, সুকমার নতুন ক্যাম্পটি তার থেকে মাত্র ৮ থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। ফলে এমন গুরুত্বপূর্ণ একটি জায়গায় ক্যাম্প তৈরির ফলে মাওবাদীদের গতিবিধিতে যে সমস্যা হবে তা বলাই বাহুল্য।  

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে