BREAKING NEWS

১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিজেপি বিরোধী জোট এককাট্টা, একলা শুধু বামেরা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 28, 2016 2:36 pm|    Updated: November 28, 2016 3:05 pm

TMC denies rift, says opposition united against demonetization

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপি বিরোধী জোটের মধ্যে কোনও দ্বন্দ্ব নেই, সোমবার এ কথা স্পষ্ট করল তৃণমূল কংগ্রেস৷ শুধু বামপন্থীরাই মর্জিমাফিক বনধ ডেকে ঐক্যবদ্ধ বিরোধী জোট থেকে নিজেদের বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছে, দাবি লোকসভায় তৃণমূলের মুখ্য সচেতক তথা সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷

বস্তুত, নোট বাতিলের বিরুদ্ধে সোমবার ‘ভারত বনধ’ না ‘আক্রোশ দিবস’- কোনটা পালিত হবে, বুঝেই উঠতে পারছিলেন না সাধারণ মানুষ৷ একই কথা শোনা গিয়েছে কংগ্রেস শীর্ষ নেতাদের মুখেও৷ দেশজুড়ে বনধ নয়, বরং কংগ্রেসও এখন ‘আক্রোশ দিবস’ পালন করার পক্ষে৷ এ রাজ্যেও ছবিটা একই৷ এদিন সকাল থেকেই রাজপথে বাম ও কংগ্রেস আলাদা আলাদা মিছিল বার করে৷ এই ঘটনাতেই স্পষ্ট, কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে একজোট হতে পারল না বিরোধীরা৷ এ রাজ্যের পাশাপাশি কেরল ও ত্রিপুরাতেও বনধ ডাকা হয়েছিল৷ সেখানে বনধের আংশিক প্রভাব পড়লেও এ রাজ্যে বামেদের ডাকা বনধ কার্যত কোনও প্রভাবই ফেলতে পারেনি৷ বরং, বামেরা ইচ্ছামতো কর্মসূচি ডেকে বিরোধী জোটের মানহানি করেছে বলে তাদের সমালোচনা করল তৃণমূল৷

সুদীপ বন্দ্যপাধ্যায়ের কথায়, “নোট বাতিল ইস্যুতে বিরোধীদের মধ্যে সমন্বয়ের কোনও অভাব নেই৷ আমরাও আক্রোশ দিবস পালন করছি৷ রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানানো হচ্ছে৷ তবে বামেদের ডাকা বনধ সমর্থনযোগ্য নয়৷ কারণ, আমরা জোটবদ্ধ হয়ে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম৷ আমার মতে, কোনও দলেরই জোট ছেড়ে বেরিয়ে গিয়ে একক সিদ্ধান্তে কোনও কর্মসূচি গ্রহণ করা উচিত হয়নি৷” এদিনই শহরে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে কলেজ স্কোয়্যার থেকে ডোরিনা ক্রসিং পর্যন্ত এক বিশাল মিছিল করে তৃণমূল৷ সেই মিছিলে পা মেলান সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সেলিব্রিটিরাও৷

বিরোধীদের দাবি, কালো টাকার বিরুদ্ধে অভিযানে তাদের কোনও আপত্তি নেই, কিন্তু সাধারণ মানুষকে দুর্ভোগে ফেলার তারা বিরোধী৷ তবে যাবতীয় সমালোচনা উড়িয়ে বিজেপির পরিবর্তন র‍্যালিতে যোগ দিতে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সাফ জানিয়েছেন, দেশের মানুষ যখন কালো টাকার বিরুদ্ধে একজোট, তখন হাতেগোনা কয়েকজন ভারত বনধ ডাকছেন৷ এর চেয়ে দুর্ভাগ্যজনক আর কী হতে পারে!

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে