২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১১ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

TMC in Tripura: ‘হতাশ নই, তেইশে নেতৃত্ব দেব’, ত্রিপুরা উপনির্বাচনের ফলপ্রকাশের পর প্রতিক্রিয়া কুণাল ঘোষের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 26, 2022 3:02 pm|    Updated: June 26, 2022 6:33 pm

TMC media co-ordinator Kunal Ghosh accused BJP of rigging after Tripura By-election results | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ত্রিপুরা (Tripura) উপনির্বাচনে প্রত্যাশামতো ভোটপ্রাপ্তি হয়নি তৃণমূলের। চার কেন্দ্রেই চতুর্থ স্থানে ঘাসফুল শিবির। কিন্তু তাতে মোটেই হতাশ নয় তৃণমূল। বরং তেইশের বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে এগিয়ে চলবে আরও প্রত্যয়, আরও পরিশ্রমের সঙ্গে। জনতার সঙ্গে তৃণমূল ছিল, আছে, থাকবেও। নির্বাচনী ফলাফল নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে এমনই বললেন তৃণমূলের মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)। তাঁর অভিযোগ, বিজেপি অবাধে সন্ত্রাস চালিয়েছে, ছাপ্পা ভোট হয়েছে। সকলে মিলে তৃণমূলকে আটকানোর চেষ্টা করেছে।

আগরতলা, টাউন বড়দোয়ালি, যুবরাজনগর, সুরমা – এই চার কেন্দ্রে উপনির্বাচনের ফল প্রকাশিত হয়েছে রবিবার। আগরতলা (Agartala) কেন্দ্রে জয়ী হয়েছেন কংগ্রেসের সুদীপ রায়বর্মন। বিজেপি প্রার্থীকে ৩ হাজারের বেশি ভোটে হারিয়েছেন তিনি। এই আসনে চতুর্থ স্থানে তৃণমূল (TMC)। প্রাপ্ত ভোটের হার ২.১ শতাংশ। সদ্য বিজেপি ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছিলেন সুদীপ। টাউন বড়দোয়ালিতে জিতেছেন মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী মানিক  সাহা। এখানেও চতুর্থ স্থানে তৃণমূল।

[আরও পড়ুন: ‘ব্যাস, একবার…’, ছাত্রীকে বাড়িতে ডেকে ধর্ষণের চেষ্টা, কাঠগড়ায় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক]

ফলাফল স্পষ্ট হতেই তৃণমূলের তরফে প্রতিক্রিয়া দিলেন কুণাল ঘোষ। তাঁর কথায়, ”কেউ যদি ভাবে তৃণমূল এই ফলাফলে হতাশ, তা কিন্তু মোটেই নয়। এই ফলাফল কিছুই প্রমাণ করে না। যদিও সাংগঠনিক স্তরে এ নিয়ে আলোচনা হবে। বিজেপি অবাধে ছাপ্পা ভোট, সন্ত্রাস চালিয়েছে। তৃণমূলের জনপ্রিয়তায় সবাই উদ্বিগ্ন। সিপিএম, বিজেপি সবাই মিলে তৃণমূলকে আটকানোর চেষ্টা করেছে। কিন্তু তেইশে যে বিকল্প সরকার তৈরি হবে ত্রিপুরায়, তাতে নেতৃত্ব দেবে তৃণমূলই।” এদিকে, ত্রিপুরায় তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুবল ভৌমিক জানান, ”মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেনাপতিত্বে আগামী দিনে ত্রিপুরায় সরকার পরিবর্তন হবেই।” 

[আরও পড়ুন: নেশা সর্বনাশা, বোঝাবেন ‘নেশাসক্ত’ মনোজ-চন্দনরা, বিশ্ব মাদকবিরোধী দিবসে অন্য ছবি]

এদিকে, আগরতলায় কংগ্রেস প্রার্থী সুদীপ রায়বর্মণ জিততেই রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। দুপুরের দিকে পার্টি অফিসে হামলা চলে বলে অভিযোগ। ইট, পাথর ছোঁড়াছুঁড়িও হয়। আহত হন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বীরজিৎ সিনহা। রাস্তায় নেমে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। হামলার ঘটনায়  কাঠগড়ায় বিজেপি। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মুখ্যমন্ত্রী পদে জয়ী প্রার্থী মানিক সাহা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে