BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সংসদ চত্বরে সাংবাদিকদের প্রবেশে ‘নিষেধাজ্ঞা’, সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গর্জে উঠলেন মমতা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: December 2, 2021 3:00 pm|    Updated: December 2, 2021 4:48 pm

TMC supremo Mamata Banerjee strongly condemns of restrictions on journalists' entrance into the Parliament House | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার সাংবাদিকদের স্বাধীনতার পক্ষে গর্জে উঠলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। দলের তরফে বৃহস্পতিবার প্রেস ক্লাবের উদ্দেশে লিখিত বিবৃতি দেওয়া হয়েছে এ নিয়ে। তাতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে দলের চেয়ারপার্সন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং গোটা দলই সাংবাদিকদের সঙ্গে রয়েছে। সংসদ ভবন চত্বরে তাঁদের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্র যে নতুন নিয়ম জারি করেছে, তার তীব্র বিরোধিতা করছে তৃণমূল (TMC)। নিজেদের এই অবস্থান স্পষ্ট করার জন্য প্রেস ক্লাবের (Press Club) শীর্ষকর্তাদের উদ্দেশে প্রেস বিবৃতি দেওয়া হয়েছে।

TMC

সম্প্রতি সংসদ চত্বরে (Parliament house) সাংবাদিকদের প্রবেশ নিয়ে নয়া নিয়ম জারি করেছে কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন সরকার। আগে আবেদনের ভিত্তিতে সংসদ চত্বরে প্রবেশ করে নিজেদের কাজের অনুমতি পেতেন বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের সাংবাদিকরা। সে টেলিভিশন চ্যানেলই হোক কিংবা সংবাদপত্র – আবেদনের ভিত্তিতে নির্দিষ্ট পরিচয়পত্র দেখিয়ে তবেই সেখানে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হতো। কিন্তু শীতকালীন অধিবেশনে (Winter session) দেখা গেল, সংসদ চত্বরেও সাংবাদিকদের প্রবেশ কার্যত নিষিদ্ধ হয়েছে। লটারির ভিত্তিতে হাতে গোনা কয়েকজন ঢুকতে পারছেন। এতে সাংবাদিকদের কাজে অধিকার খর্ব করা হচ্ছে বলে মনে করে তৃণমূল। তাই কেন্দ্রের এই পদক্ষেপের বিরোধিতা করে সাংবাদিকদের পক্ষে দাঁড়িয়েছে। দলের আবেদন, সাংবাদিকদের প্রবেশ নিয়ে নয়া কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা হোক।

[আরও পডুন: অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্কুল বন্ধ দিল্লিতে, সুপ্রিম কোর্টের ধমকের পরই সিদ্ধান্ত]

এ নিয়ে বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন দলের জাতীয় মুখপাত্র তথা রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ ব্রায়েন (Derek O Brien)। তিনি অভিযোগ করেন, বলা হচ্ছে – সংবাদমাধ্যমের প্রবেশ নিষিদ্ধ অথচ দেখা যাচ্ছে, সরকারের হয়ে সংবাদ পরিবেশন করা মাধ্যমগুলি দিব্যি প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছে। এ থেকেই বোঝা যায়, খবর ‘সেন্সর’ করা হচ্ছে। তাঁর অভিযোগ, ”সংসদ টিভি এখন সেন্সর টিভি।” এরপরই ডেরেক বলেন, ”সংসদের দুই কক্ষের অধ্যক্ষদের কাছে আমাদের বিনীত নিবেদন, নতুন বিধি পুনর্বিবেচনা করা হোক। প্রয়োজনে টেলিভিশন কভারেজের নিয়ম বদল হোক। পার্লামেন্ট সিক্রেট চেম্বার হয়ে গিয়েছে।”

[আরও পডুন: ‘নেতৃত্ব কোনও ব্যক্তির ঈশ্বর প্রদত্ত অধিকার নয়’, রাহুল গান্ধীকে বেনজির আক্রমণ প্রশান্ত কিশোরের]

তৃণমূলের জারি করা বিবৃতিতে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতায় বিশ্বের মধ্যে ভারতের কী পরিস্থিতি, তাও উল্লেখ করা হয়েছে। ১৮০ টি দেশের মধ্যে ভারতের র‌্যাংক ১৪২। এই অবস্থায় সংসদ ভবনে সাংবাদিকদের প্রবেশ নিয়ে কেন্দ্রের পদক্ষেপ সমালোচিত হবে, সেটাই স্বাভাবিক।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে